logo

সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৯ আশ্বিন, ১৪২৫

header-ad

আজ জাতীয় পাট দিবস

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: ০৬ মার্চ ২০১৮

আজ ৬ মার্চ মঙ্গলবার জাতীয় পাট দিবস। ‘সোনালী আশেঁর সোনার দেশ, পাট পণ্যের বাংলাদেশ’- এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে এবার জাতীয় পাট দিবস উদযাপন করা হবে। অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক বাজারে পাটের রফতানি বাড়ানোর লক্ষ্য নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো জাতীয় পাট দিবস উদযাপন করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আজ সকাল ১০টায় এ দিবসের কেন্দ্রীয় অনুষ্ঠান ও পাট পণ্যের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। পাট নিয়ে রাজধানী ঢাকাবাসীর মধ্যে কোনো উৎসাহ ও উদ্দীপনা না থাকলেও দিবসটি উপলক্ষে রাজধানীতে রকমারি সাজসজ্জার আয়োজন করা হয়েছে। 

বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে রাজধানীর প্রধান প্রধান সড়ক ও সড়ক দ্বীপগুলো সাজানো হয়েছে পাট, পাটখড়ি, পাটের পণ্য, রঙ-বেরঙয়ের ব্যানার, ফেস্টুন ও প্লাকার্ড দিয়ে। এ ছাড়া আলোকসজ্জাও করা হয়েছে। কয়েকদিন ধরে নগরবাসীর নজর কাড়ছে এ সড়ক দ্বীপগুলো। এ দিবসটি উপলক্ষে নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে পাট মন্ত্রণালয়।

পাট দিবসের কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে পাট দিবসের গুরুত্ব ও পাটসংক্রান্ত বিষয়ে আগ্রহ সৃষ্টির লক্ষ্যে স্কুলশিক্ষার্থীদের রচনা প্রতিযোগিতা ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে। দুই গ্রুপে এ প্রতিযোগিতায় বিজয়ী ছয়জনকে আজ পুরস্কৃত করবেন প্রধানমন্ত্রী। এ ছাড়া ১১টি ক্যাটাগরিতে আরও ১২ জনের হাতে পাট দিবসের পুরস্কার তুলে দেয়া হবে।

জাতীয় পাট দিবস সামনে রেখে ২৭ থেকে ২৮ ফেব্রুয়ারি শিল্পকলা একডেমি মিলনায়তনে পাটের ক্যানভাসে শিল্পীদের আর্ট ক্যাম্প, ১ মার্চ মানিক মিয়া এভিনিউ থেকে মানিকগঞ্জ হয়ে ফরিদপুর পর্যন্ত রোড শো এবং ২ মার্চ মানিকমিয়া এভিনিউ থেকে ময়মনসিংহ হয়ে জামালপুর পর্যন্ত রোড শো অনুষ্ঠিত হয়।

এ ছাড়া ৩ মার্চ হাতিরঝিলে নৌ শোভাযাত্রা, ৪ মার্চ জাতীয় যাদুঘর মিলনায়তনে কবিতা পাঠের আসর, ৫ মার্চ সিরডাপ মিলনায়তনে সেমিনার, ৬ থেকে ৮ মার্চ বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে পাটপণ্যের মেলা, ৭ মার্চ ঢাকা চেম্বার মিলনায়তনে সেমিনারের আয়োজন করা হয়েছে। ৮ মার্চ বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে সমাপনী অনুষ্ঠান হবে।

ফেমাসনিউজ২৪/আরএ/আরইউ