logo

মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৮ | ১ কার্তিক, ১৪২৫

header-ad

একই গাছে ১০ প্রজাতির আম!

| আপডেট: ০৪ মে ২০১৮

এমনটা আগে কেউ দেখেনি। এবার দেখালেন ভারতের রাষ্ট্রপতি পুরস্কারপ্রাপ্ত অবসরপ্রাপ্ত বছর বাষট্টির শিক্ষক পীযূষকান্তি সাহা। তার বাড়ির একটি আমগাছে ১০ প্রজাতির আম ফলিয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন তিনি।

কাটোয়া ২নং ব্লকের গাজিপুর পঞ্চায়েতের মালঞ্চ গ্রামে পীযূষবাবুর এ কীর্তি দেখতে এলাকার বিভিন্ন গ্রামের লোকজন ছুটে আসছেন।

আম গাছের শখ পীযূষবাবুর। বাড়িতে একটা হিমসাগর গাছ রয়েছে। নার্সারি থেকে নানান প্রজাতির আম গাছ এনে লাগিয়ে ফল মিলছিল না। মরে যাচ্ছিল। তাই শেষমেশ হিমসাগর গাছের ডালে ডালে নানান প্রজাতির আমের চারা এনে কলম করেন।

টানা তিন বছর ধরে পর্যাপ্ত খাবার ও ঠিকঠাক দেখভাল'র জন্য মিলল ফল। একই গাছে হিমসাগরের সঙ্গে জরদালু, গোলাপখাস, ল্যাংড়া, ফজলি, আম্রপালি, বারমেসে, মল্লিকাসহ গোটা দশেক প্রজাতির আম ফলেছে।

পীযূষবাবুর কথায়, একে তো মাটিতে গাছ লাগিয়ে ফল মিলছিল না, সেটা হল। তার সঙ্গে যেটা হয়, একই আম সাধারণত টানা দু’‌বার ফলে না। দশটা প্রজাতির আম থাকলে সেই সমস্যাটা হবে না। ফি–বছর আম ফলবেই।

পীযূষবাবুর স্ত্রী ইন্দ্রাণী সাহা বললেন, গাছ তার প্রাণ। গাছ নিয়ে থাকতে পছন্দ করেন। তার এ ভাবনা অভিনব সত্যিই অভিনব। খবর পেয়ে তার এ কাজ দেখতে ছুটে আসছেন বহু মানুষ।

পীযূষবাবুর কাজের তারিফ করে কৃষি কর্মকর্তা সুমনা মণ্ডল বললেন, এমন ঘটনার কথা জেনে প্রথমে আশ্চর্য হয়েছিলাম। সত্যি, একটি দারুণ কাজ করেছেন পীযূষবাবু। খুবই প্রশংসনীয় কাজ। আমরা খুশি। তিনি দক্ষতার স্বীকৃতিও পেয়েছেন। চাষিরা এটা দেখে অনুপ্রাণিত হবেন।
ফেমাসনিউজ২৪/এফএম/এমএম