logo

সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮ | ৫ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫

header-ad

বীরগঞ্জে উচ্চ ফলনশীল বিনা-১৭ ধানের শস্য কর্তন ও মাঠ দিবস

শেখ মো. জাকির হোসেন, বীরগঞ্জ প্রতিনিধি | আপডেট: ১৭ অক্টোবর ২০১৮

 

দিনাজপুরের বীরগঞ্জে বিনা উদ্ভাবিত স্বপ্ন জীবন কালীন ও উচ্চ ফলনশীল আমন ধানের জাত বিনা ধান-১৭ এর প্রচার ও সম্প্রসারণের লক্ষ্যে শস্য কর্তন ও মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বাংলাদেশ পরমানু গবেষণা ইনষ্টিটিউট রংপুর উপকেন্দ্র ও বীরগঞ্জ উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে পরিবর্তিত আবহাওয়া উপযোগী বিভিন্ন ফসল ও ফলের জাত উন্নয়ন শীর্ষক কর্মসূচির অর্থায়ন করে। বুধবার উপজেলার নিজপাড়া ইউনিয়নের দেবিপুর গ্রামের উদ্যোক্তা কৃষক মো. আব্দুল জলিলের জমিতে ধান কেটে আনুষ্ঠানিক ভাবে মাঠ দিবসের উদ্বোধন করেন অতিরিক্ত পরিচালকের কার্যালয় দিনাজপুর অঞ্চল উপ-পরিচালক ড. মাহবুবুর রহমান।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার মনোরঞ্জ অধিকারীর সঞ্চালনায় উপজেলা কৃষি অফিসার মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে শস্য কর্তন ও মাঠ দিবসের এক আলোচনা সভায় উপস্থিত কৃষক-কৃষাণীদের উদ্যেশ্যে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পরিচালকের কার্যালয় দিনাজপুর অঞ্চল উপ-পরিচালক ড. মাহবুবুর রহমান।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর খামার বাড়ী দিনাজপুর উপ-পরিচালক মো. তৌহিদুল ইকবাল, রংপুর বিনা উপকেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্ত ও বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা তানজিলুর রহমান মন্ডল, বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মো. সামিউল হক প্রমুখ।

বক্তারা জানান, বিনা উদ্ভাবিত স্বপ্ন জীবন কালীন ও উচ্চ ফলনশীল আমন ধানের জাত বিনা ধান-১৭ জীবন কাল মাত্র ১১৭দিন। চাষাবাদের খরচ এবং রোগবালাই কম হওয়ায় হেক্টর প্রতি এর সর্বোচ্চ ফলন ৮টন। জাতটি চাষাবাদের পদ্ধতি অন্যান্য উফশি রোপা আমন জাতের মতই। তবে এই ধানের আগাম ফলন হওয়ায় একই জমিতে শীতকালিন ফসল চাষ করা যায়। এতে কৃষকেরা বেশি লাভবান হয়।

ফেমাসনিউজ২৪/কেআর/এস