logo

রবিবার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১ | ৪ মাঘ, ১৪২৭

header-ad

ফেনীতে স্বর্ণের দোকানে দুর্ধর্ষ ডাকাতি, গুলিবিদ্ধ ৫

ফেমাস নিউজ রিপোর্ট | আপডেট: ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৪

ফেনী শহরের ট্রাংক রোডের আবেদীন জুয়েলার্সে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। গুলি করে ও শতাধিক বোমা ফাঁটিয়ে ৭’শ ভরি স্বর্ণ ডাকাতরা নিয়ে যায়। এ সময় পাশের এক দোকানের মালিকসহ অন্তত ৫ জন গুলিবিদ্ধ হয়। 

পুলিশ, প্রত্যক্ষদর্শী ও ক্ষতিগ্রস্তরা জানায়, সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে কয়েকজন মুখোশধারী দুর্বৃত্ত ক্রেতা বেশে খাজা আহম্মদ সড়কের আবেদীন জুয়েলার্সে ঢোকে। এ সময় ১৫-২০ জন অস্ত্রধারী আশপাশের সড়কে অবস্থান নেয়। একপর্যায়ে তারা বিকট শব্দে ফাঁকা গুলি ও বোমা ফাটাতে থাকলে পুরো শহরে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। মুহূর্তেই দোকানপাট বন্ধ ও প্রধান সড়কগুলো লোকশূন্য হয়ে যায়। এ সময় স্বর্ণ দোকানে অবস্থান নেয়া দুর্বৃত্তরা মালিক ও কর্মচারীকে অস্ত্র ঠেকিয়ে শোকেজে রাখা সব স্বর্ণালংকার লুট করে বস্তা ভরে নিয়ে যায়।

দোকান মালিক জয়নাল আবদীনের ছেলে রুমেল সাংবাদিকদের জানান, ঘটনার ভয়াবহতায় দোকানের কর্মচারীরা আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়ে। দুর্বৃত্তরা চলে গেলে আশপাশের দোকানদাররা এগিয়ে আসে।

খবর পেয়ে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) মুহম্মদ সামছুল আলম সরকারসহ র্যাব-পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন।

পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, ঘটনাস্থল থেকে কয়েকটি তাজা ককটেল ও একটি পিস্তলের ম্যাগজিন উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনায় জড়িতদের সনাক্ত করতে দোকানের ব্যবহৃত সিসি ক্যামেরাটি জব্দ করা হয়েছে।

খবর পেয়ে ফেনী-২ আসনের সংসদ সদস্য ও পৌর মেয়র নিজাম উদ্দিন হাজারী ক্ষতিগ্রস্ত দোকান পরিদর্শন করেন। ফেনী জেলা জুয়েলার্স সমিতির সাধারণ সম্পাদক আরিফুল হক রুবেল জানান, ফেনী শহরে এ ধরনের দোকান লুটের ঘটনা অতীতে কখনো ঘটেনি। এদিকে শহরের মেইন রোডে স্বর্ণ দোকান লুটের খবর জানাজানি হলে ব্যবসায়ীদের ক্ষোভ ও আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।