logo

শনিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২১ | ৯ মাঘ, ১৪২৭

header-ad

মার্কিন সহায়তা অব্যাহত থাকবে : ইউএসএইড

ফেমাস নিউজ রিপোর্ট | আপডেট: ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৪

ফেমাস নিউজ ডেস্ক

বাংলাদেশের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের বার্ষিক উন্নয়ন সহায়তা অতীতের মতো অব্যাহত থাকবে। তবে চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতির কারণে গণতন্ত্র ও সুশাসন কর্মসূচির অর্থ অন্য কর্মসূচিতে সমন্বয়ের পরিকল্পনা রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের। যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থার (ইউএসএইড) মিশন ডিরেক্টর ইয়ানিনা ইয়ারুজেলস্কি সোমবার এক ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান। ইউএসএইডের নতুন প্রধান হিসেবে ইয়ারুজেলস্কি গত ২ জানুয়ারি ঢাকায় আসেন।

এদিকে ইউএসএইড ও যুক্তরাজ্যের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থার (ইউকেএইড) অর্থায়নে পরিচালিত এক জনমত জরিপ সম্পর্কে ইয়ানিনা ইয়ারুজেলস্কি বলেন, জরিপে দুই দলের জন্য বার্তা রয়েছে। জরিপে ৫৭ শতাংশ মানুষ নির্বাচনের গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। আবার ৭৯ শতাংশ মানুষ মনে সহিংসতার বিপক্ষে মত দিয়েছেন। আর বেশির ভাগ মানুষ মত দিয়েছেন পাঁচ বছরের আগেই নির্বাচন হওয়া উচিত।

প্রসঙ্গত, ২ ফেব্রুয়ারি ওয়াশিংটনভিত্তিক গবেষণা সংস্থা ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল (ডিআই) পরিচালিত এক জরিপে বলা হয়েছে, ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে সব দল অংশ নিলে আওয়ামী লীগ বিজয়ী হতো।

৫ জানুয়ারির নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিদ্যমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে মার্কিন সহায়তা অব্যাহত থাকবে কি না ইয়ানিনা ইয়ারুজেলস্কির কাছে জানতে চাইলে ইউএসএইড প্রধান বলেন, দরিদ্র ও সবচেয়ে ঝুঁকিতে থাকা মানুষের জীবনে পরিবর্তন আনা তাঁদের কর্মসূচির মূল লক্ষ্য। এখানকার রাজনৈতিক পরিস্থিতি যাই থাকুক না কেনো, এই লক্ষ্য অব্যাহত থাকবে। তবে তিনি গণতন্ত্র ও সুশাসন কর্মসূচির আওতায় সংসদের জন্য নির্ধারিত কর্মসূচিতে সহায়তা কমানোর কথা উল্লেখ করেন। ইউএসএইড প্রতিবছর কী পরিমাণ সহায়তা দেয় ও সুশাসন কর্মসূচিতে অর্থায়ন কতটা কমবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ২০১৩ সালে বাংলাদেশকে প্রায় ২০০ মিলিয়ন ডলার দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। এ বছরও তা অব্যাহত থাকবে। সুশাসন ও গণতন্ত্র কর্মসূচির অর্থ কমানোর কোনো পরিকল্পনা নেই ।