logo

রবিবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৭ | ৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৪

header-ad

‘নিরপেক্ষ ও সব দলের অংশগ্রহণে নির্বাচন চায় ভারত’

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: ২৩ অক্টোবর ২০১৭

বাংলাদেশে সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও সব দলের অংশগ্রহণে নির্বাচন দেখতে চায় ভারত। বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে বৈঠকে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ এসব কথা বলেছেন বলে জানান বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। 

২২ অক্টোবর রোববার রাত আটটায় রাজধানীর একটি হোটেলে ৪৫ মিনিটব্যাপী ওই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। 

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের মির্জা ফখরুল বলেন, অত্যন্ত সৌহার্দপূর্ণ পরিবেশে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। আলোচনায় দুই দেশের মধ্যে পারস্পারিক সম্পর্ক আরও কীভাবে শক্তিশালী করা যায় সে বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

ফখরুল জানান, বৈঠকে এক পর্যায়ে খালেদা জিয়া রোহিঙ্গা সমস্যা নিয়ে কথা বলেন। তিনি সুষমা স্বরাজকে বলেছেন, রোহিঙ্গারা এই মুহূর্তে বাংলাদেশের জন্য বড় সমস্যা। আমরা চাই তাদের মিয়ানমারে ফিরিয়ে নেয়া হোক। জবাবে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তারাও চান নিরাপদে রোহিঙ্গারা নিজ দেশে চলে যাক। ভারত এজন্য মিয়ানমারের প্রতি চাপ অব্যাহত রেখেছে।

বৈঠকে খালেদা জিয়া বাংলাদেশের সামগ্রিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি তুলে ধরেন বলে জানান ফখরুল। তিনি বলেন, এর জবাবে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সমস্যার কথা শুনে বলেছেন, ভারত একটি বৃহৎ গণতান্ত্রিক দেশ। তারা চায় প্রতিবেশী অন্যান্য দেশেও গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত থাকুক। তারা চায় বাংলাদেশে সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও সব দলের অংশগ্রহণে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হোক। নির্বাচন কমিশন তাদের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করুক।

বৈঠকে ৫ জানুয়ারি নির্বাচনের আগে ভারতের যে ভূমিকা থেকে সরকার সরে আসছে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে ফখরুল বলেন, বৈঠকের সব বিষয় বলা হয়েছে। বৈঠকে খালেদা জিয়ার সঙ্গে বিএনপি প্রতিনিধি দলে আরও ছিলেন মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ড. মঈন খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, উপদেষ্টা রিয়াজ রহমান, সাবিহ উদ্দিন আহমেদ।

ফেমাসনিউজ২৪/আরআর/আরইউ