logo

রবিবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭ | ৩ পৌষ, ১৪২৪

header-ad

নাগরিক সমাবেশে কাদের সিদ্দিকী ও নাজমুল হুদা

ফেমাস নিউজ ডেস্ক | আপডেট: ১৮ নভেম্বর ২০১৭

রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে নাগরিক সমাবেশে অংশগ্রহণ করেন মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বীর উত্তম ও বিএনপি সরকারের সাবেক মন্ত্রী ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা। সরকারদলীয় মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ নেতাদের সঙ্গে তাদের বসে থাকতে দেখা গেছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ই মার্চের ভাষণ ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যের দলিল হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়ায় আজ শনিবার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট এ নাগরিক সমাবেশের আয়োজন করে। নাগরিক সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন এমিরেটাস অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান। সমাবেশ পরিচালনা করেন নাট্যজন রামেন্দু মজুমদার ও শহীদ বুদ্ধিজীবী ডা. আলীম চৌধুরীর মেয়ে ডা. নুজহাত চৌধুরী।

মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকারের এমপি ছিলেন। পরবর্তীতে মতপার্থক্যের কারণে দল ত্যাগ করে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ গঠন করেন তিনি। এরপর থেকে আওয়ামী লীগের একজন কড়া সমালোচক কাদের সিদ্দিকী। তবে বঙ্গবন্ধুর প্রতি তার একনিষ্ঠ ভক্তির কথা প্রকাশ করে থাকেন তিনি।

বাংলাদেশ মানবাধিকার পার্টি (বিএমপি) নামে নতুন একটি রাজনৈতিক দলের ঘোষণা দিয়েছেন বিএনপি থেকে বহিষ্কৃত সাবেক মন্ত্রী ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা। 'বাংলাদেশ জাতীয় জোট' নামের একটি জোটও ঘোষণা করেন তিনি।

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে অংশ না নেয়া বিএনপিকে দায়ী করে ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা বলেছিলেন, ‘‌কোটি কোটি মানুষ ভোট দেয়ার জন্য প্রস্তুত ছিল। যদি বলি বিএনপি মানুষকে ভোট থেকে বঞ্চিত করেছ- তা কি ভুল হবে? আমি বার বার বলেছি বিএনপি ভুল করেছে। একের পর এক ভুল করতে করতে দলটির এখন দৈন্যদশা’।

ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা বিএনপির কড়া সমালোচক। তিনি সভা-সমাবেশে যোগ দিলেই বিএনপির সমালোচনা প্রাধান্য পায়।
ফেমাসনিউজ২৪/এফএম/এমএম