logo

মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৮ | ১ কার্তিক, ১৪২৫

header-ad

বায়তুল মোকাররমে প্রতিদিন ৪ হাজার মুসল্লির ইফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: ১৬ মে ২০১৮

পবিত্র মাহে রমজানে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে প্রতিদিন চার হাজার রোজাদারকে ইফতার করাবে ইসলামিক ফাউন্ডেশন (ইফা)। তাছাড়া মাহে রমজান যথাযোগ্য ধর্মীয় মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্য পরিবেশে উদযাপনের জন্য সারাদেশে মাসব্যাপী ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে সংস্থাটি। গত সোমবার ইসলামিক ফাউন্ডেশনের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

মাসব্যাপী এ কর্মসূচির প্রথম দিনে বুধবার রমজানের পবিত্রতা রক্ষায় জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেট থেকে র‌্যালি বের করার কথা রয়েছে। এ র‌্যালির উদ্ভোধন করবেন ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান ।

তাছাড়া অন্যান্য কর্মসূচিগুলো হলো-

বিনামূল্যে কোরআন শরিফ বিতরণ :
শিশুদের মাঝে মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা প্রকল্পের আওতায় ৬৭ হাজার ৩৬৮টি কেন্দ্রের প্রতিটিতে ১০টি করে ৬ লাখ ৭৩ হাজার ৩৬৮টি পবিত্র কুরআন শরিফ বিনামূল্যে বিতরণ করা হবে।

পবিত্র কুরআন শিক্ষা :
বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে ১ হতে ২৫ রমজান বয়স্কদের জন্য কুরআন শিক্ষা দেয়া হবে। পৃথক ব্যাচে প্রতিদিন নারী ও পুরুষদের ৩টি ব্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। ১ম ব্যাচ- বেলা ১২টা হতে দুপুর ১টা, ২য় ব্যাচ- দুপুর ২টা হতে বিকাল ৩টা এবং ৩য় ব্যাচ- বিকাল ৫টা হতে ৬ টা।

ইসলামি বইমেলা :
জাতীয় মসজিদের দক্ষিণ চত্বরে ১ রমজান থেকে মাসব্যাপী ইসলামি বইমেলা অনুষ্ঠিত হবে। মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য খোলা থাকবে।

হালাল পণ্য বিক্রি ও প্রদর্শনী :
মাহে রমজানে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের দক্ষিণ সাহানে মাসব্যাপী হালাল পণ্য বিক্রয় ও প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে। এ প্রদর্শনী প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য খোলা থাকবে।

ইসলামি ক্যালিওগ্রাফি, পুস্তক ও মহানবী (সা.) এর জীবনীভিত্তিক পোস্টার প্রদর্শনী :
বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের উত্তর সাহানে ইসলামি ক্যালিওগ্রাফি, পুস্তক ও নবী করিম (সা.) এর জীবনীভিত্তিক পোস্টার প্রদর্শনী হবে। প্রতিদিন বাদ যোহর থেকে মাগরিবের নামাজের পূর্ব পর্যন্ত প্রদর্শনী দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

বাদ যোহর তাফসির ও প্রাক তারাবীহ আলোচনা :
মাহে রমজানে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে প্রতিদিন বাদ যোহর তাফসিরুল কুরআন মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া প্রতিদিন তারাবিহ নামাজে পঠিতব্য আয়াতের ওপর তারাবিহ নামাজের পূর্বে আলোচনা করা হবে।

খতমে বোখারী ও মাসয়ালা-মাসায়েল আলোচনা :
প্রতিদিন বাদ আসর থেকে পবিত্র রমজান মাসে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের পূর্ব সাহানে খতমে বোখারী (দরসে হাদীস) ও রমজানে মাসয়ালা মাসায়েল সম্পর্কে আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে।

কিয়ামুল লাইল :
বায়তুল মোকাররম মসজিদে ২০ রমজান দিবাগত রাত থেকে ২৬ রমজান দিবাগত রাত পর্যন্ত প্রতিদিন রাত ১২টা থেকে ৩টার মধ্যে ৭ দিনব্যাপী কিয়ামুল লাইল নামাযে তিলাওয়াতের মাধ্যমে পবিত্র কুরআন শরীফ এক খতম সম্পন্ন করা হবে।

টিভি চ্যানেলে সরাসরি সম্প্রচার :
মাহে রমজান উপলক্ষে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে প্রতিদিন বাদ যোহর অনুষ্ঠেয় তাফসিরুল কুরআন মাহফিল ও সন্ধ্যা ৬টা থেকে ইফতারের পূর্ব পর্যন্ত খতমে বোখারির অনুষ্ঠান একটি চ্যানেলে সরাসরি সম্প্রচার করা হবে।

১০১০টি দারুল আরকাম মাদ্রাসায় আলোচনা সভা :
ইসলামিক ফাউন্ডেশন পরিচালিত ১হাজার ১০টি দারুল আরকাম ইবতেদায়ী মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের পবিত্র রমজানের গুরুত্ব ও মাসলা-মাসায়েল শিক্ষা প্রদান করা হবে।

বিশেষ কমিশনে ইসলামি বই বিক্রয় :
পবিত্র রমজান উপলক্ষে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের আগারগাঁওস্থ প্রধান কার্যালয়, বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদ এবং ৬৪ বিভাগীয়/জেলা কার্যালয়ের বিক্রয় কেন্দ্রে বিশেষ কমিশনে পুস্তক বিক্রি করা হবে। ২০১০ সালের পূর্বে প্রকাশিত বইয়ের ওপর ৫০% এবং ২০১১ সালের পরে প্রকাশিত বইয়ের ওপর ৩৫% কমিশন প্রদান করা হবে।

ফেমাসনিউজ২৪.কম/জেডআর