logo

বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ | ৪ পৌষ, ১৪২৫

header-ad
নির্বাচনী ট্রেনে বিএনপি

অবশেষে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ খালেদার

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: ১২ নভেম্বর ২০১৮

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে তিনটি আসনের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।

আজ সোমবার রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান ও মির্জা আব্বাস খালেদা জিয়ার পক্ষে পৃথক তিনটি মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন।

মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর খালেদা জিয়ার পক্ষে বগুড়া-৬ (সদর) আসন, নজরুল ইসলাম খান ফেনী-১ আসন ও মির্জা আব্বাস বগুড়া-৭ আসনের খালেদা জিয়ার পক্ষে এই মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন।

এদিকে চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মনোনয়ন সংগ্রহের মধ্য দিয়ে দীর্ঘদিন ক্ষমতার বাইরে থাকা বিএনপির নির্বাচনী কার্যক্রম বিশেষ করে মনোনয়নপত্র বিক্রি শুরু হলো আজ।

জানা যায়, মনোনয়নপত্র বিক্রির জন্য নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বুথ তৈরি করা হয়েছে। দ্বিতীয় তলায় মহিলা দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে কুমিল্লা বিভাগ, মিটিং রুমে চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগ, চতুর্থ তলায় ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা ও ময়মসিংহ বিভাগ, চতুর্থ তলায় ঢাকা মহানগর যুবদল দক্ষিণের কার্যালয়ে বরিশাল বিভাগ, পঞ্চম তলায় স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে খুলনা ও ফরিদপুর বিভাগ, পঞ্চম তলায় শ্রমিক দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের জন্য বুথ খোলা হয়েছে।

দলটির আরেকটি সূত্র জানিয়েছে, বিএনপির মনোনয়নপত্রে ৭টি শর্ত রয়েছে। শর্তগুলোর মধ্যে রয়েছে

ক. বিএনপির আদর্শ ও রাজনীতির প্রতি সর্বদা শ্রদ্ধাশীল ও অনুগত থাকা এবং দলের প্রতিষ্ঠা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ১৯ দফা কর্মসূচিসহ যে কোনো দলীয় কর্মসূচি বাস্তবায়নে সর্বশক্তি নিয়োগ করা।
খ. দলের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত হলে সংসদ সদস্য বা মন্ত্রী হিসেবে বেতন/ভাতা থেকে যথাক্রমে মাসে ২০০০ ও ৫০০ টাকা দলীয় তহবিলে জমা দানের বাধ্যবাধকতা।

গ. দলের এবং পার্লামেন্টারি পার্টির সমস্ত আদেশ, নির্দেশ মানতে বাধ্য থাকা; দলের নির্দেশ প্রাপ্ত হলে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার এবং সংসদ সদস্য পদ হতে পদত্যাগ করার বাধ্যবাধকতা।

ঘ. দলীয় মনোনীত প্রার্থী হিসেবে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলে দল পরিবর্তন কিংবা সংসদীয় দলের নেতা/নেত্রীর সম্মতি বা সিদ্ধান্ত ছাড়া নির্দিষ্ট আসন পরিবর্তন বা অন্য কোনো দলের সঙ্গে সংঘবদ্ধ বা এককভাবে জোট গঠন বা জোটে যোগদান, কোয়ালিশনে যোগদান বা ফ্লোর ক্রস করলে দলীয় গঠনতন্ত্রের ৫(ঘ) (২) ধারা মোতাবেক দল থেকে পদ্যতাগ বলে গৃহীত হবে এবং দল সেক্ষেত্রে সংসদ সদস্যপদ বাতিলের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

ঙ. ঋণখেলাপি হওয়া যাবে না, বাংলাদেশের নাগরিক ছাড়া অন্য দেশের নাগরিক হওয়া যাবে না।

চ. কোনো অবস্থায় বা পদে থাকাকালীন কোনো প্রকার দুর্নীতি, অসত্য বা মিথ্যার আশ্রয় নেয়া যাবে না।

ছ. প্রতি বছর মনোনয়নপ্রত্যাশীর ওপর নির্ভরশীল পরিবারের সকল সদস্যের স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তির হিসাব চেয়ারপারসনের কাছে দাখিল করার বাধ্যবাধকতা।

নাইকো দুর্নীতি মামলার শুনানির জন্য গত ৮ নভেম্বর বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে বিএসএমএমইউ হাসপাতাল থেকে আদালতে নেয়া হয়।

১ মাস ২ দিন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকার পর খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজির করা হয়। গত ৬ অক্টোবর খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিএসএমএমইউ হাসপাতালে নেয়া হয়।

উল্লেখ্য, গত ৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকার পঞ্চম বিশেষ জজ আদালতের বিচারক মো. আখতারুজ্জামান জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায়ে খালেদা জিয়াকে ৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন। বর্তমানে তিনি পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের কেন্দ্রীয় কারাগারে আছেন।

ফেমাসনিউজ২৪.কম/আরআই/আরবি/আরইউ