logo

বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮ | ৭ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫

header-ad

রেস্টুরেন্ট ও ফার্মেসিকে দেড় লাখ টাকা জরিমানা

আইন-অপরাধ ডেস্ক | আপডেট: ১০ অক্টোবর ২০১৮

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের উদ্যোগে বিশেষ অভিযান চালিয়ে একটি রেস্টুরেন্ট ও তিনটি ফার্মেসিকে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। আজ বুধবার রাজধানীর মহাখালীতে এ অভিযান পরিচালনা করা হয় বলে অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে।

অভিযান পরিচালনায় ছিলেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আব্দুল জব্বার মন্ডল, সহকারী পরিচালক জান্নাতুল ফেরদাউস এবং অভিযানে সহায়তা করেন এপিবিএন-১ এর সদস্যরা।

আব্দুল জব্বার মন্ডল ফেমাসনিউজকে বলেন, বিভিন্ন অপরাধে চারটি ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করা হয়েছে। চিশতিয়া হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্টকে ৩০ হাজার টাকা, বিসমিল্লাহ ড্রাগ হাউজকে ৩০ হাজার টাকা, মজুমদার ড্রাগ হাউজকে ৪০ হাজার টাকা এবং মনির মেডিকেল হলকে ৫০ হাজার টাকাসহ মোট দেড় লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

মেসার্স মনির মেডিকেল হল ও বিসমিল্লাহ ড্রাগ হাউকে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ রাখার অপরাধে এ জরিমানা করা হয়। চিশতিয়া হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্টকে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার তৈরির অপরাধে জরিমানা করা হয় বলে জানান তিনি।

আব্দুল জব্বার বলেন, এ অভিযান আমরা নিয়মিত রুটিনমাফিক পরিচালনা করে থাকি। শুধু জরিমানা করা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মূল কাজ নয়। আমাদের কাজ হচ্ছে জনধারণকে তাদের অধিকার বিষয়ে সচেতন করা।

তিনি বলেন, যে শিশুটি আজকে জন্মগ্রহণ করলো এবং যে মারা গেল প্রত্যেকেই ভোক্তা। আমরা প্রত্যেকে প্রত্যেকের জায়গা থেকে সচেতন হলে ভোক্তা অধিকার সঠিকভাবে প্রতিষ্ঠিত হবে।

সহকারী পরিচালক আব্দুল জব্বার মন্ডল বলেন, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর শুধু অভিযানই পরিচালনা করে না, কোনো ভোক্তা যদি পণ্য বা সেবা ক্রয় করে প্রতারিত হন তাহলে তারা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরে অভিযোগ করলে তার সমাধান করে দেয়া হয়। ভোক্তা অধিদপ্তরে লেখিতভাবে, অনলাইনের মাধ্যমে, ফোনের মাধ্যমে এমন কি অফিসে সশরীরে এসে অভিযোগ করতে পারেন।
ফেমাসনিউজ২৪/এফএম/এমএম