logo

সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮ | ৫ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫

header-ad

ডা. জাফরুল্লাহর বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: ১৬ অক্টোবর ২০১৮

একটি বেসরকারি টেলিভিশনের টকশোতে সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ সম্পর্কে ভুল তথ্য উপস্থাপন করায় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা করা হয়েছে।

তার বিরুদ্ধে ক্যান্টনমেন্ট থানায় দায়ের করা সাধারণ ডায়েরি (জিডি) সোমবার মামলা হিসেবে গ্রহণ করা হয়েছে। মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ক্যান্টনমেন্ট থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কবির হোসেন হাওলাদার।

এর আগে শুক্রবার রাতে ক্যান্টনমেন্ট থানায় জিডিটি করেন সেনাসদরের মেজর এম রকিবুল আলম। প্রাথমিকভাবে তদন্তের জন্য মামলাটি মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) দক্ষিণ বিভাগে জিডিটি হস্তান্তর হয়। ঘটনার প্রাথমিক তদন্ত করেন ডিবির সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) ফজলুর রহমান। অবশেষে চারদিন পর একে মামলা হিসেবে গ্রহণ করা হলো।

সেনাসদরের করা সেই জিডিটিতে উল্লেখ করা হয়, ৯ অক্টোবর রাতে সময় টিভির সম্পাদকীয় অনুষ্ঠানে সেনাপ্রধান সম্পর্কে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বক্তব্য উদ্দেশ্যপ্রণোদিত, বিদ্বেষপ্রসূত ও ষড়যন্ত্রমূলক। তিনি কেন, কী উদ্দেশে এবং কাদের প্ররোচণায় তিনি এ বক্তব্য দিয়েছেন তা তদন্তের দাবি জানাচ্ছি।

টকশোতে সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ সম্পর্কে বিভিন্ন ধরনের অসত্য বক্তব্য তুলে ধরেন ডা. জাফরুল্লাহ।

এর দুইদিন পর অবশ্য এক সংবাদ সম্মেলন করে ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, সেনাপ্রধানকে নিয়ে টেলিভিশনের টকশোতে বিরূপ মন্তব্যের জন্য আমি দুঃখ প্রকাশ করছি। জেনারেল আজিজ আহমেদ কখনো চট্টগ্রামের জিওসি বা কমান্ডেন্ট ছিলেন না। তার বিরুদ্ধে কখনো কোর্ট মার্শালও হয়নি। অসাবধানতাবশত এসব তথ্য বক্তব্যে এসেছে।

শনিবার জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বক্তব্যকে ‘দায়িত্বজ্ঞানহীন’ ও ‘অসত্য’ বলে আখ্যায়িত করে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতর (আইএসপিআর)।
ফেমাসনিউজ২৪/কেআর/এস