logo

বুধবার, ১৫ জুলাই ২০২০ | ৩০ আষাঢ়, ১৪২৭

header-ad

ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণীর শারীরিক অবস্থার উন্নতি

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: ০৯ নভেম্বর ২০১৭

মুক্তিযোদ্ধা ও ভাস্কর ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণীর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে। পায়ের গোড়ালিতে চোট পাওয়ার পর ৮ নভেম্বর বুধবার দুপুরে তাকে রাজধানীর ল্যাব এইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অর্থোপেডিক বিভাগে চিকিৎসা চলাকালে দুই দফায় সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়েন তিনি। তার চিকিৎসায় হাসপাতালের কার্ডিওলজি বিভাগের অধ্যাপক ডা. বরেন চক্রবর্তীর নেতৃত্বে একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়। ওই বোর্ডের পরামর্শে বুধবার রাতে তার পায়ের গোড়ালির অস্ত্রোপচার করা হয়।

ল্যাব এইডের সহকারী মহাব্যবস্থাপক (করপোরেট) সাইফুর রহমান লেলিন গণমাধ্যমকে জানান, ভর্তি করার পর তার শারীরিক অবস্থা যে পর্যায়ে ছিল এখন সে তুলনায় অনেক উন্নতি হয়েছে। হাসপাতালের সিসিইউতে রেখে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তার রক্তে পটাসিয়াম ও হিমোগ্লোবিন একেবারেই কমে গেছে।

৭০ বছর বয়সী ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণী দীর্ঘদিন ধরে ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, কিডনিসহ নানা জটিলতায় ভুগছেন।

১৯৪৭ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি খুলনায় জন্মগ্রহণ করেন ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণী। ১৯৭১ সালে তিনি পাক হানাদারদের কাছে নির্যাতিত হন। স্বাধীনতা যুদ্ধে তার অবদানের জন্য ২০১৬ সালে বাংলাদেশ সরকার তাকে মুক্তিযোদ্ধা খেতাব দেয়। এর আগে ২০১০ সালে তিনি স্বাধীনতা পদক পান। ২০১৪ সালের অমর একুশে বইমেলায় তার আত্মজৈবনিক গ্রন্থ 'নিন্দিত নন্দন' প্রকাশিত হয়।

ফেমাসনিউজ২৪/আরআর/আরইউ