logo

শুক্রবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ | ৭ আশ্বিন, ১৪২৪

header-ad

চট্টগ্রামে তিন দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক গার্মেন্ট এক্সেসরিজ গার্মেনটেক মেলা শুরু

এএইচএম কাউছার, চট্টগ্রাম | আপডেট: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭

গার্মেন্টস শিল্পে ব্যবহৃত আধুনিক যন্ত্রপাতি, প্রয়োজনীয় কাঁচামাল, গার্মেন্টস এক্সেসরিজ নগরীর ব্যবসায়ীদের সামনে তুলে ধরতে বন্দর নগরী চট্টগ্রামে প্রথমবারের মতো শুরু হয়েছে তিন দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক ইয়ার্ন এন্ড ফেব্রিক্স, গার্মেন্ট এক্সেসরিজ বাণিজ্য মেলা গার্মেনটেক।

বুধবার নগরীর জিইসি কনভেনশন সেন্টারে বাংলাদেশ এবং ভারতের যৌথ মালিকানাধীন কোম্পানি এএসকে ট্রেড এন্ড এক্সিবিশন প্রাইভেট লিমিটেড উদ্যোগে আন্তর্জাতিক গার্মেন্ট এক্সেসরিজ বাণিজ্য মেলা উদ্বোধন করা হয়। তিনদিন ব্যাপী এই মেলা উদ্বোধন করেন বিজিএমইএ সহ সভাপতি মঈনউদ্দিন আহম্মেদ মিন্টু। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিজিএপিএমইএ’র সভাপতি মোঃ আব্দুল কাদের খান।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিজিএমইএ সহ সভাপতি মঈনউদ্দিন আহম্মেদ মিন্টু বলেন, বাংলাদেশ আজ এগিয়ে চলেছে। সর্বক্ষেত্রে উন্নয়নের বিস্ময়। গার্মেন্টস শিল্প ১২ হাজার মিলিয়ন ডলার রপ্তানি দিয়ে শুরু হয়েছিল। আগামী ২০২১ সালের মধ্যে গার্মেন্টসসহ সব সেক্টরে ৬০ বিলিয়ন ডলার রপ্তানির লক্ষ্য রয়েছে। চট্টগ্রাম পোশাক শিল্প মালিকদের এই মেলায় আসার জন্য তিনি অনুরোধ জানান। প্রতিবছর এ রকম মেলা করা প্রয়োজন। মর্ডান টেকনোলজি ব্যবহার করে অর্থনৈতিক উন্নয়ন করতে হবে। মর্ডান টেকনোলজি বিকল্প নেই বলে মনে করেন তিনি।

আয়োজক সংস্থা এএসকে’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক টিপু সুলতান ভূঁইয়া জানিয়েছেন, মূলত স্থানীয় ব্যবসায়ীদের আন্তর্জাতিক প্রযুক্তি সম্পর্কে ধারণা দেয়ার জন্য মেলার এমন আয়োজন। সরাসরি বিভিন্ন প্রযুক্তি কাছ থেকে দেখার সুযোগ হয়। এতে আধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে চট্টগ্রামের গামেন্টস ব্যবসায়রী আরো অর্থনৈতিক ভাবে এগিয়ে যাবে।

এএসকে ট্রেড এন্ড এক্সিবিশন প্রাইভেট লিমিটেডের ডিরেক্টর নন্দা গোপাল বলেন, এএসকে ট্রেড মূলত বাংলাদেশ এবং ভারতের যৌথ মালিকানাধীন কোম্পানি। আমাদের মূল উদ্দেশ্য আন্তর্জাতিক টেকনোলজি প্রদর্শনীর মধ্য দিয়ে দেশীয় শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলোকে সহায়তা করা। সেই লক্ষ্যে ১৬ বছর ধরে ঢাকায় এই ধরনের আন্তর্জাতিক মানের মেলা আয়োজন করা হয়।

এই মেলায় ভারতসহ ৯টি দেশের ১০০টি কোম্পানী অংশ নিচ্ছে। মেলায় ৪টি প্যাভিলিয়ন ও ১১০টি স্টলে গার্মেন্ট মেশিনারিসহ সব ধরণের এক্সেসরিজ থাকবে। মেলাটি প্রতিদিন বেলা ১১টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের উন্মুক্ত থাকবে।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন এএসকে’র পরিচালক মো. সেলিম, চারুকারু মিডিয়া এইড সার্ভিস এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক লায়ন এমএ হোসেন বাদল ও পরিচালক মো. সাইফুদ্দীন আজাদ প্রমুখ।

ফেমাসনিউজ২৪.কম/প্রতিনিধি/এস/এস