logo

শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৯ | ৬ বৈশাখ, ১৪২৬

header-ad

দ্রুত ধনী হওয়ার দিক থেকে বিশ্বে বাংলাদেশ তৃতীয়

অর্থ-বাণিজ্য ডেস্ক | আপডেট: ২০ জানুয়ারি ২০১৯

দ্রুত ধনী হওয়া মানুষের সংখ্যার দিক থেকে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান তৃতীয়। নিউইয়র্কভিত্তিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান ওয়েলথ-এক্স প্রকাশিত বুধবারের রিপোর্ট ‘হাই নেট ওয়ার্থ হ্যান্ডবুক ২০১৯’-এ এ কথা বলা হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, ২০১৮ থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত দেশের সমন্বিত বার্ষিক জাতীয় প্রবৃদ্ধি বাড়বে শতকরা ১১.৪ ভাগ। ধনী মানুষের সংখ্যার দিক থেকে মাত্র চারটি দেশ জাতীয় প্রবৃদ্ধি দুই অংকে পৌঁছাবে। এর শীর্ষে রয়েছে নাইজেরিয়া। সেখানে এ হার শতকরা ১৬.৩ ভাগ। তার পরেই রয়েছে মিসর। সেখানে এ হার শতকরা ১২.৫ ভাগ।

এরপরের অবস্থান বাংলাদেশের। এ দেশে এ হার শতকরা ১১.৪ ভাগ। এরপরে রয়েছে ভিয়েতনাম (১০.১ ভাগ), পোল্যান্ড (১০ভাগ) চীন (৯.৮ ভাগ), কেনিয়া (৯.৮ ভাগ), ভারত (৯.৭ ভাগ), ফিলিপাইন (৯.৪ ভাগ) ও ইউক্রেন (৯.২ ভাগ)।

রিপোর্টে বলা হয়, আগামী ৫ বছরে উচ্চ মাত্রার নেট সম্পদের (এইচএনডব্লিউ) মানুষের সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে। এইচএনডব্লিউ হিসেবে ওইসব ব্যক্তিকে ওয়েলথ-এক্স সংজ্ঞায়িত করেছে, যাদের নেট সম্পদের পরিমাণ ১০ লাখ থেকে ৩ কোটি ডলার। যাদের ৩ কোটি ডলারের বেশি অর্থ রয়েছে তাদের আলট্রা-হাই নেট ওয়ার্থ বা ইউএইচএনডব্লিউ হিসেবে শ্রেণিবিন্যাস করা হয়েছে।

গেল বছর সেপ্টেম্বরে একইরকম একটি রিপোর্ট প্রকাশ করে ওয়েলথ-এক্স। তাতে বাংলাদেশকে দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতি, যেখানে অধিক হারে ধনী দেশের মধ্যে শীর্ষে রাখা হয়।

বলা হয়, ২০১২ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত এখানে ইউএইচএনডব্লিউ জনসংখ্যা দ্রুত বৃদ্ধি পেয়েছে। এ বৃদ্ধির হার শতকরা ১৭.৩ ভাগ। এদিকে ২০১৮ সালে বিশ্বে এইচএনডব্লিউ জনসংখ্যা শতকরা ১.৯ ভাগ বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ২৪ লাখ। তাদের সমন্বিত সম্পদ শতকরা ১.৮ ভাগ বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়িয়েছে ৬১.৩ ট্রিলিয়ন। তথ্যসূত্র অনলাইন : ডেইলি স্টার