logo

শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৭ আশ্বিন, ১৪২৫

header-ad
কোটা সংস্কার আন্দোলন

মশিউরের মুক্তিদাবি, ঢাবির ক্লাসে তালা

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: ১১ জুলাই ২০১৮

কোটা সংস্কার আন্দোলনের সময় পুলিশের কাজে বাধা ও ভাংচুর মামলায় আটক সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক মশিউর রহমানের মুক্তির দাবিতে ক্লাসে তালা ঝুলিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা। মশিউর এ বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।

আজ বুধবার ক্লাস শুরুর আগে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের দ্বিতীয় তলার শ্রেণিকক্ষে তালা ঝুলিয়ে দেয়া হয়।

শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেন-মিথ্যা মামলা দিয়ে মশিউরকে নির্যাতন করা হচ্ছে।

এ সময় বিভাগটির শিক্ষক অধ্যাপক ডা. জামাল উদ্দিন তাদের বাধা দিয়ে সরে যেতে বলেন। কিন্তু শিক্ষার্থীরা তাতে দমে না গিয়ে জানিয়েছেন, মশিউরের মুক্তি না হওয়া পর্যন্ত তারা ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জন করবেন।

সমাজবিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আকরাম হোসেন বলেন, উপচার্যের বাসায় হামলার ঘটনায় মশিউরকে দুই দিন রিমান্ড দিয়েছেন আদালত। অথচ ঘটনার দিন ৮ এপ্রিল মশিউর সেখানে ছিলেন না। মিথ্যা মামলা দিয়ে তাকে নির্যাতন করা হচ্ছে। আমরা মশিউরকে ছাড়া ক্লাসে যাব না, পরীক্ষাও দেব না।

তিনি আরও বলেন, আমাদের ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন ও কর্মসূচি অব্যাহত রয়েছে। মশিউর মুক্তি না পাওয়া পর্যন্ত চলবে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আরেক শিক্ষার্থী বলেন, মশিউরের অভিভাবক বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। কিন্তু তার এই সংকট মুহূর্তে তারা তার পাশে দাঁড়াচ্ছে না। মশিউরকে অবিলম্বে মুক্ত করতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে আহ্বান জানান তিনি।

উল্লেখ্য, উল্লেখ্য, গত ৮ এপ্রিল কোটা সংস্কার আন্দোলন চলাকালে দায়িত্বরত পুলিশকে মারধর, কর্তব্যে বাধা, পুলিশের ওয়াকিটকি ছিনতাই ও ভিসির বাড়ি ভাঙচুরের ঘটনায় শাহবাগ থানায় ১০ এপ্রিল চারটি মামলা করা হয়। এর মধ্যে পুলিশ বাদী হয়ে তিনটি মামলা করে।

আর উপাচার্যের বাসভবন ভাঙচুরের ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র সিকিউরিটি অফিসার এসএম কামরুল আহসান বাদী হয়ে আরও একটি মামলা করেন।

ফেমাসনিউজ২৪.কম/আরআই/আরবি