logo

বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮ | ১ অগ্রাহায়ণ, ১৪২৫

header-ad

ঢাবিতে ভর্তিযুদ্ধ শুরু, থাকল বিভিন্ন তথ্য

শিক্ষা ডেস্ক | আপডেট: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) ২০১৮-২০১৯ শিক্ষাবর্ষে প্রথম বর্ষ সম্মান শ্রেণির ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়েছে আজ শুক্রবার থেকে।

আজ ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ১০টা থেকে শুরু হয়। শেষ হবে ১১টায়।

বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস ও ক্যাম্পাসের বাইরের মোট ৫৪টি কেন্দ্রে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। বাইরের কেন্দ্রগুলো হলো- বিশ্ববিদ্যালয়ের লেদার ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি ইনস্টিটিউ এবং বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল ও কলেজ। ‘গ’ ইউনিটে এক হাজার ২৫০টি আসনের বিপরীতে ভর্তিচ্ছু আবেদনকারীর সংখ্যা ২৬ হাজার ৯৬০ জন।

বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ইউনিটের অধীনে প্রথম বর্ষ বিএফএ সম্মান শ্রেণিতে ভর্তি পরীক্ষা (সাধারণ জ্ঞান) অনুষ্ঠিত হবে আগামীকাল শনিবার সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত।

পরীক্ষা বিশ্ববিদ্যালয় চারুকলা অনুষদসহ ক্যাম্পাসের মোট ১৯টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে। ‘চ’ইউনিটে ১৩৫টি আসনের বিপরীতে ভর্তিচ্ছু আবেদনকারীর সংখ্যা ১৬ হাজার ৪৮০ জন।

পরীক্ষার হলে মোবাইল ফোনসহ টেলিযোগাযোগ করা যায়- এমন কোনো ইলেকট্রনিক ডিভাইস/যন্ত্র সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরীক্ষার সময় দায়িত্ব পালন করবে।

এদিকে গত বছর ভর্তি পরীক্ষায় ডিজিটাল জালিয়াতির মাস্টারমাইন্ডখ্যাত সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মহিউদ্দিন রানার ঢাবির হলে অবস্থান করছেন। এতে এবারও পরীক্ষায় জালিয়াতির আশঙ্কা করছেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

জানা যায়, পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র মহিউদ্দিন রানা বিশ্ববিদ্যালয়ের ড. মুহম্মদ শহিদুল্লাহ হলের প্রধান ভবনের ২২৪ নম্বর রুমে অবস্থান করছেন। গত বছর ২০ অক্টোবর সম্মিলিত ‘ঘ’ইউনিটের পরীক্ষার আগের দিন রাতে পুলিশ রানাকে ভর্তি জালিয়াতির ডিভাইসসহ আটক করে। ওই সময় তার সঙ্গে ফলিত রসায়ন ও কেমি কৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের আবদুল্লাহ আল মামুনকেও আটক করা হয়।

সে সময় প্রক্টর অধ্যাপক আমজাদ হোসেন সাংবাদিকদের জানান, ডিভাইসসহ আটকরা ভর্তি জালিয়াতির মাস্টার মাইন্ড। মহিউদ্দিন রানা আদালতে জালিয়াতির বিষয়ে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিও দেন। কিন্তু জামিনে মুক্ত হয়ে মহিউদ্দিন রানা আবারও হলে ওঠেন।

মহিউদ্দিন রানার হলে থাকার বিষয়ে ড. মুহম্মদ শহিদুল্লাহ হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সৈয়দ হুমায়ন আখতার বলেন, এ বিষয়ে আমার কাছে তথ্য নেই। তিনি তথ্য জেনে বিষয়টি খতিয়ে দেখবেন বলে জানান।

এদিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন জানান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মেধাহীন কেউ যেন জালিয়াতি করে ভর্তি না হতে পারে, সেজন্য সতর্ক থাকবে ছাত্রলীগ। তিনি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে সর্বোচ্চ সতর্কতার সঙ্গে, সর্বোচ্চ স্বচ্ছতার সঙ্গে উচ্চপ্রযুক্তি ব্যবহার করে পরীক্ষা কার্যক্রম সম্পন্ন করার আহ্বান জানান। গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রধান আলোচকের বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

ছাত্রলীগের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, ছাত্রলীগের কেউ যদি প্রশ্ন ফাঁস কিংবা ভর্তি জালিয়াতির সঙ্গে জড়িত থাকে, তাহলে আমরা তা অস্বীকার না করে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেব। জালিয়াতির বিরুদ্ধে আমরা ‘জিরো টলারেন্স’নীতি মেনে চলব।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের পরীক্ষা উপলক্ষে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ২০-৩০টি বুথের মাধ্যমে ভর্তিচ্ছুদের তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করবে। তাদের জন্য সুপেয় পানি এবং কেউ অসুস্থ হলে প্রাথমিক চিকিৎসার ব্যবস্থাও করা হবে বলে জানান তিনি।

ভর্তি পরীক্ষা ও প্রবেশপত্র ডাউনলোড

গ-ইউনিটের পরীক্ষার মাধ্যমে ভর্তি পরীক্ষা আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয় আজ। বরাবরের মতো ঘ-ইউনিটের পরীক্ষার মাধ্যমে ভর্তি পরীক্ষা শেষ হবে। সে অনুযায়ী, ক-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২৮ সেপ্টেম্বর শুক্রবার, খ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২১ সেপ্টেম্বর শুক্রবার।

গ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ১৪ সেপ্টেম্বর শুক্রবার, ঘ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ১২ অক্টোবর শুক্রবার, চ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা (সাধারণ জ্ঞান) ১৫ সেপ্টেম্বর শনিবার এবং চ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা (অঙ্কন) ২২ সেপ্টেম্বর শনিবার অনুষ্ঠিত হবে।

‘গ’ ও ‘চ’ ইউনিটের প্রবেশপত্র ডাউনলোড শুরু হয়েছে গত ৫ সেপ্টেম্বর থেকে। আজ সকাল ৯টা পর্যন্ত ‘গ’ ও ‘চ’ ইউনিটের প্রবেশপত্র ডাউনলোড করা যায়।

‘ক’, ‘খ’, ‘ঘ’ ইউনিটের প্রবেশপত্র ডাউনলোড শুরু হয় ১০ সেপ্টেম্বর বিকাল ৩টা থেকে পরীক্ষার দিন সকাল ৯টা পর্যন্ত। ভর্তি পরীক্ষার আসন বিন্যাস জানা যাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ওয়েবসাইট থেকে।

ফেমাসনিউজ২৪.কম/আরআই/আরবি