logo

শুক্রবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | ৯ ফাল্গুন, ১৪২৫

header-ad

রাকসু সংলাপ: সাত দাবি ছাত্র ফেডারেশনের

রাজশাহী ব্যুরো | আপডেট: ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

হলের বাইরে বা একাডেমিক ভবনে ভোটগ্রহণ, ভোটকেন্দ্রগুলো সিসিটিভির আওতায় আনাসহ সাত দাবি নিয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (রাকসু) সংলাপ কমিটির সঙ্গে আলোচনা করেছে বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের রাবি শাখার নেতাকর্মীরা।

বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর দফতরে ফেডারেশনের সঙ্গে মতবিনিময়ের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে আলোচনা শুরু করল রাকসু নির্বাচন-সংক্রান্ত সংলাপ কমিটি।

সংলাপে রাবি শাখা ছাত্র ফেডারেশন সাতটি দাবি জানিয়েছে। এগুলো হলো- হলের বাইরে বা একাডেমিক ভবনে ভোটগ্রহণ, ভোটকেন্দ্রে সিসিটিভির ব্যবস্থা করা, ক্যাম্পাসে সকল ক্রিয়াশীল ছাত্র সংগঠন নিয়ে পরিবেশ পরিষদ গঠন, খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশ, ক্যাম্পাসে একক আধিপত্য দল না থেকে সহাবস্থান নিশ্চিত, রাকসুর সভাপতি পদে ছাত্র প্রতিনিধির মধ্যে থেকে নির্বাচন, রাজনৈতিক নিষেধাজ্ঞা ও সান্ধ্য আইন প্রত্যাহারেরও দাবি জানান।

ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি কিংসুক কিঞ্জল বলেন, আমরা রাকসুর ব্যাপারে আশাবাদী। প্রশাসনও এ ব্যাপারে বেশ আগ্রহ দেখাচ্ছে। তবে আমরা চাই দ্রুত তফসিল ঘোষণা করা হোক। এছাড়াও ভিপি ও জিএস এর মতো রাকসুর সভাপতি পদে নির্বাচন হোক। রাকসুর কোষাধ্যক্ষ পদে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন থেকে কাউকে দায়িত্ব দেয়ার দাবি জানান তিনি।

এ সময় ছাত্র ফেডারেশনের সহসাধারণ সম্পাদক সুব্রত কর্মকার, রাজনৈতিক শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক মহব্বত হোসেন মিলন, প্রচার সম্পাদক ইসরাফিল আলম এবং সদস্য আসমা উষা, আব্দুস সবুর লটাস, অন্তু বিশ্বাস প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর ও রাকসু সংলাপ কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. লুৎফর রহমান যুগান্তরকে জানান, ছাত্র ফেডারেশনের সঙ্গে আলোচনার মধ্যে দিয়ে সংলাপ শুরু হলো। আগামী ১২ ফেব্রুয়ারি ছাত্রমৈত্রীর সঙ্গে আলোচনায় বসা হবে। পর্যায়ক্রমে তথ্য জমা দেয়া ছাত্র সংগঠনগুলোর সঙ্গে সংলাপে বসবে কমিটি।

তিনি জানান, ধারাবাহিকভাবে এ আলোচনা চলতেই থাকবে। এছাড়াও সংলাপে বসার আগেই প্রত্যেক সংগঠনকে সংলাপ কমিটির পক্ষ থেকে নির্ধারিত তারিখ জানিয়ে দেয়া হবে বলে জানান তিনি।

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ে সক্রিয় সামাজিক সাংস্কৃতিক, স্বেচ্ছাসেবী ও অরাজনৈতিক সংগঠনগুলোকে সংগঠনের গঠনতন্ত্র, কমিটির তালিকা আগামী সপ্তাহের মধ্যে প্রক্টর অফিসে জমা দেয়ার আহ্বান করা হয়েছে বলে জানান প্রক্টর।

এর আগে গত ২২ জানুয়ারি থেকে ২৯ জানুয়ারি পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০টি রাজনৈতিক ছাত্র সংগঠন তাদের গঠনতন্ত্র ও কমিটির তালিকা জমা দেয়। সংগঠনগুলোর জমা দেয়া পর্যালোচনা শেষে ওই সংগঠনগুলোর সঙ্গে আলোচনা শুরু করেছে রাকসু নির্বাচন সংলাপ কমিটি।

ফেমাসনিউজ ২৪/এসএ/কেআর