logo

রবিবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭ | ৩ পৌষ, ১৪২৪

header-ad

এ কোন মানসী! (ভিডিও)

বিনোদন ডেস্ক | আপডেট: ২৪ নভেম্বর ২০১৭

এক জবাবেই দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছেন। সৌন্দর্য আর যোগ্যতার বিচারে বিশ্বের সেরা সুন্দরী হয়েছেন। মাথায় উঠেছে রত্নখচিত মুকুট। ভারতের ১৭ বছরের খরা কাটিয়েছেন ২০ বছরের তরুণী। জেতার এই অভ্যাস ছোট থেকেই রয়েছে মানসী চিল্লারের। সোনপতের ভগত ফুল সিং গর্ভমেন্ট কলেজে ডাক্তারির দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী তিনি। ছোট থেকে আবার কুচিপুড়ি শিখছেন। ভাল আঁকতে জানেন। আবৃত্তি, অভিনয় করার যেমন শখ, তেমনই ভালবাসেন বাঞ্জি জাম্পিং, স্কুবা ডাইভিংয়ের মতো অ্যাডভেঞ্চার স্পোর্টস।

একই অঙ্গে এত প্রতিভা কেমন করে সম্ভব? এই প্রশ্নই এখন ঘুরপাক খাচ্ছে নেটদুনিয়ায়। উত্তর মিলল মানুষীর একটি পুরনো ভিডিওয়। যা নতুন করে ভাইরাল হয়েছে তার বিশ্বসুন্দরী হওয়ার পর। ভিডিওতে মানসী জানিয়েছেন, কীভাবে মেডিকেলের প্রবেশিকা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলেন তিনি। কোনো কিছু পেতে গেলে কেবল আদাজল খেয়ে পরিশ্রম করলেই হবে না, বুদ্ধি দিয়ে খাটতে হবে। তাহলে সাফল্যের পথ অনেকটা সহজ হয়ে যাবে। নিজের ভিডিওতে এমনটাই জানিয়েছেন মানুষী।

তবে সাফল্যের এই রহস্যের চেয়ে নেটদুনিয়ায় চর্চায় উঠে এসেছে মানুষীর পুরনো রূপ। বিশ্বসুন্দরীর মঞ্চে যে কন্যার মোহময়ী রূপ সকলের নজর কেড়েছে। যার চোখের চাহনি, গালের টোল এখন পুরুষদের কাছে সবচেয়ে আকর্ষণীয়। সেই মানসী এই ভিডিওয় একদম সাদাসিধে চেহারায় ধরা দিয়েছেন। যা দেখে অতি বড় বোদ্ধাও বোধহয় তখন ভাবতে পারেননি যে এই মেয়েই একদিন বিশ্বের মঞ্চে সৌন্দর্যের দ্যুতি ছড়াবে। আর ভারতের মুখ উজ্জ্বল করবে। অবশ্য অভিজ্ঞদের মতে মানুষের আসল রূপ তার গুণের মাধ্যমেই বিকশিত হয়। আর মানসীর ক্ষেত্রেও তাই হয়েছে। আর এই গুণই তাকে করে তুলেছে সকলের সেরা।

ফেমাসনিউজ২৪/আর‌অ্যা/আরইউ