logo

বুধবার, ১৫ আগস্ট ২০১৮ | ৩১ শ্রাবণ, ১৪২৫

header-ad

ভাইরাল কেন প্রিয়ার চাহনি! জেনে নিন আসল রহস্য

বিনোদন ডেস্ক | আপডেট: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ইন্টারনেট বড় মজার জায়গা। কে যে কখন এখানে হয়ে ওঠেন ‘ভাইরাল’। এই ভাইরাল হওয়ার কিন্তু কোনও নির্দিষ্ট সমীকরণ নেই। খুব মজার কিছু যেমন সকলের মন জিতে নিতে পারে, ঠিক তেমনই খুব বিতর্কিতও ছড়িয়ে পড়তে পারে হু হু করে।

এই মুহূর্তে ইন্টারনেট কাঁপাচ্ছেন প্রিয়া প্রকাশ ভরিয়ার। আপাতত এই মেয়েকে নিয়ে মাতোয়ারা সোশ্যাল মিডিয়া। তার সুন্দর মুখশ্রী ও অসামান্য বিভঙ্গগুলিই তাকে করে তুলেছে ভাইরাল। তাকে বলা হচ্ছে ন্যাশনাল ক্রাশ। একেবারে অচেনা এক অষ্টাদশী রাতারাতি বিদ্ধ করেছেন আসমুদ্রহিমাচলের যুব-হৃদয়। অথচ যে গানের খণ্ডাংশে তার এক্সপ্রেশন দেখে সকলে বুঁদ, সেই ছবি এখনও মুক্তি পেতে পরের মাস। সবে মাত্র ছবির এই একটি গানই মুক্তি পেয়েছে অনলাইনে। আর তাতেই ছবিটিকে ঘিরে সকলেরই উৎসাহ তুঙ্গে। আর তার সিংহভাগই প্রিয়ার জন্য। ভালবাসার যে অনুচ্চার প্রকাশ প্রিয়ার চোখে দেখেছে নেটিজেনরা, তার পর আর তা যেন ভুলতে পারছেন না তারা।

পাগলের মতো গুগল খুঁজে দেখছে সবাই। কে এই মেয়ে। আর সেই সব তথ্য মুহূর্তে ছড়িয়ে পড়ছে। কেরালার ত্রিচূড়ে জন্ম প্রিয়ার। বাবার নাম প্রকাশ ভরিয়ার। ত্রিচূড়ের বিমলা কলেজের বিকম প্রথম বর্ষের ছাত্রী। ভালবাসেন গান শুনতে, নাচতে আর ঘুরে বেড়াতে।

ঠিক কেন ‘ভাইরাল’ প্রিয়ার চাহনি? আসলে ওই ছোট্ট ক্লিপে ছেলেটি আর মেয়েটির যে চোখে চোখে কথা ভেসে এসেছে ইন্টারনেটের দুনিয়ায়, তা যেন ঠিক আজকের পৃথিবীর নয়। সেই যখন হোয়াটসঅ্যাপ আর ফেসবুক ছিল না, মোবাইল ফোনও ছিল কল্পবিজ্ঞানের উপাদান, তখনকার কথা। যখন কথা কম হতো, চাহনির সঙ্কেতই বলে যেত কথা। সেই মৃদুমন্দ প্রেমের বাতাসই যেন বয়ে এল আচমকা, এই ছোট্ট ক্লিপটির হাত ধরে।

ভাইরাল হলে তা নিয়ে মেমেও তৈরি হবে। এক্ষেত্রেও হয়েছে। বেছে নেওয়া কয়েকটি এখানে দেওয়া হল। কখনও মোদীর ভাষণের ক্লিপ, কখনও বা মিস্টার বিন- বৈচিত্র্য সত্যিই দেখবার মতো।

আপাতত সকলেরই অপেক্ষা ছবি মুক্তির। তবে তার জন্য ৩ মার্চ পর্যন্ত অপেক্ষা করা ছাড়া উপায় নেই। অবশ্য তার আগে নতুন কোনও গান বা ক্লিপে আবার দেখা যায় কি না প্রিয়াকে, সেই অপেক্ষাতেই সোশ্যাল মিডিয়া।

ফেমাসনিউজ২৪.কম/এসআর/এসএম