logo

সোমবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৮ | ৩০ আশ্বিন, ১৪২৫

header-ad

ট্রাম্পের সঙ্গে যৌনতায় মোটেও সুখ পাননি পর্নোস্টার স্টর্মি!

বিনোদন ডেস্ক | আপডেট: ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

বেশ আগে থেকেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে যৌন সম্পর্কে থাকার দাবিতে সরব হন পর্নস্টার স্টর্মি ড্যানিয়েলস। সম্প্রতি নিজের আত্মজীবনী নিয়ে একটি বই লিখেছেন এই তারকা।

বইয়ে তিনি বিস্ফোরক সব বিষয় টেনে এনেছেন। ওই বইয়ে তিনি লিখেছেন- ‘ট্রাম্পের সঙ্গে তার যৌন সম্পর্ক সবচেয়ে কম আকর্ষণীয়’ ছিল। বইটিতে ড্যানিয়েলস লিখেছেন, ‘গল্ফ টুর্নামেন্টেই প্রথমবার ট্রাম্পকে দেখেন তিনি। এরপর ট্রাম্পের পেন্টহাউসে তার একজন দেহরক্ষীর মাধ্যমে রিয়েল এস্টেট টাইকুনের সঙ্গে ডিনার করার আমন্ত্রণ জানান তাকে। সেখানেই প্রথমবার তাদের যৌন সম্পর্ক হয়।’ তিনি লিখেছেন, ‘এটি আমার সবচেয়ে কম আকর্ষণীয় যৌনতা ছিল।’

বইটির বরাত দিয়ে গত মঙ্গলবার দ্য গার্ডিয়ানের এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে আসে। যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচনের এক মাস আগে আগামী ২ অক্টোবর বইটি প্রকাশ পাওয়ার কথা রয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ড্যানিয়েলস ২০১৬ সালে ট্রাম্পের রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট মনোনয়নের বিষয়টির উল্লেখও করেন। ‘এটা কখনই ঘটেনি। তিনি প্রেসিডেন্ট হতে চাননি কখনও’,ড্যানিয়েলস লিখেছেন।

এই পর্নো তারকা আরও জানান, এর পরের বছরেও ট্রাম্পের রিয়েলিটি শো ‘দ্য অ্যাপ্রেন্টিস’এ তাকে ডাকা হবে এ আশায় তিনি ট্রাম্পের সঙ্গে যোগাযোগ রেখেছিলেন। বলেন, ‘তিনি আমার সঙ্গে প্রতারণা করেছেন এবং এটি শতভাগই তার পরিকল্পনামাফিক’।

ড্যানিয়েলসের আইনজীবী মাইকেল অ্যাভেনত্তি, দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনের পর টুইট করেছেন-‘ট্রাম্পের সঙ্গে ড্যানিয়েলসের যৌনতার বর্ণনাই এ বইয়ের সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নয়। বরং এটি তার জীবন নিয়ে এক আধুনিক নারী হিসেবে সত্য কথা বলার কাহিনী।’

এদিকে শুরু থেকেই প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ড্যানিয়েলসের সঙ্গে তার সম্পর্কের ব্যাপারটি অস্বীকার করে গেছেন। কিন্তু তার আইনজীবী মাইকেল কোহেনের কথা অনুযায়ী, ২০১৬ সালের নভেম্বরে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে সম্পর্কের বিষয়টি গোপন রাখতে ড্যানিয়েলসকে ঘুষ হিসেবে এক লাখ ৩০ হাজার ডলার দেন ট্রাম্প। কিন্তু ২০১৭ সালের পর এসে আস্তে আস্তে তাদের অন্দরমহলের খবর বের হতে থাকে।

ফেমাসনিউজ২৪.কম/আরআই/আরবি