logo

বুধবার, ১৯ জুন ২০১৯ | ৫ আষাঢ়, ১৪২৬

header-ad

উপজেলা নির্বাচনেও ভোটে লড়বেন হিরো আলম

বিনোদন ডেস্ক | আপডেট: ০৯ জানুয়ারি ২০১৯

জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর এবার আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনেও ভোটে লড়বেন আলোচিত অভিনেতা হিরো আলম। তিনি উপজেলা চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করবেন বলে সম্প্রতি গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নির্বাচন কমিশনকে (ইসি) হাইকোর্ট দেখানো হিরো আলম বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) আসন থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। নির্বাচনে নিজের ভোটটিও দিতে না পেরে আক্ষেপ করে হিরো আলম বলেন, ভোটকেন্দ্রে গিয়ে দেখি ব্যালটই নেই।

ওই আসনে জয়ী হয়েছেন বিএনপির প্রার্থী। তবে বিএনপির দলীয় সিদ্ধান্তে শপথ নেননি তিনি। এ অবস্থায় নির্বাচনের পরবর্তী ৯০ দিনের মধ্যে শপথ না নিলে এ আসনে ফের উপ-নির্বাচন হবে। উপ-নির্বাচনেও প্রার্থী হতে চান হিরো আলম।

এ বিষয়ে হিরো আলম গণমাধ্যমকে বলেন, আমাদের এলাকায় যিনি এমপি হয়েছেন, তিনি তো শপথ নেননি। এখানে তো উপনির্বাচন হবে। পরিস্থিতি ভালো থাকলে ভোটে আসব। আর যদি দেখি পরিস্থিতি ভালো নেই তাহলে ভোটে লড়বো না।

আগামী মার্চে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন হতে যাচ্ছে। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ভোটে লড়ার ইচ্ছা আছে আলোচিত এ অভিনেতার। এ বিষয়ে হিরো আলম বলেন, সবকিছু পরিবেশের ওপর নির্ভর করবে। পরিবেশ যদি ভালো হয় তাহলে নির্বাচনে আসব। আর যদি পরিবেশ ভালো না হয় নির্বাচনে যাব না।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বগুড়া-৪ আসন থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করে নির্বাচনের দিন সকালে ‘হামলা-মারধর ও এজেন্টকে বের করে দেয়াসহ একাধিক অভিযোগে এনে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান হিরো আলম। ভোট গণনার পর জানা যায়, নিজ আসনে সিংহ প্রতীকে হিরো আলম ভোট পেয়েছেন ৬৩৮টি।

মোট ভোটের এক-অষ্টমাংশ না পাওয়ায় জামানত হারান হিরো আলম। ওই আসনে মোট ১ লাখ ২৬ হাজার ৭২২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন বিএনপি প্রার্থী মোশারফ হোসেন।
ফেমাসনিউজ২৪/এফএম/এমএম