logo

বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮ | ৩ কার্তিক, ১৪২৫

header-ad

প্রমাণ দিলেই মিলবে ১৪ হাজার কোটি টাকা!

অন্যরকম খবর ডেস্ক | আপডেট: ২৪ ডিসেম্বর ২০১৭

মালিক নেই ১৪ হাজার কোটি টাকারও বেশি। ব্যাঙ্কগুলোতে দাবিহীন অবস্থায় পড়ে থাকায় মহাটেনশনে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। কে নেবে টাকা এ টাকাগুলো? নমিনি বা উত্তরা‌‌‌ধিকারীর নাম নথিভুক্ত না থাকায় ব্যাঙ্কগুলো সচেতনতা তৈরির কাজে নেমে দাবিহীন অবস্থায় পায় এ পরিমাণ টাকা।

সম্প্রতি ভারত চেম্বার অব কমার্সের সভায় এ দাবি করেন ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব সিকিউরিটিজ মার্কেটসের ডিরেক্টর সন্দীপ ঘোষ। এ নিয়ে সচেতনতা তৈরির কাজে নেমেই এ তথ্য সামনে এসেছে বলে জানান তিনি।

ইউকো ব্যাঙ্কের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর ভি এস আইয়ারও বলেন, ‘প্রায় সমস্ত ব্যাঙ্কেই বিপুল টাকা দাবিহীনভাবে রয়েছে। কোনও অ্যাকাউন্টে ১০ বছর লেনদেন না হলে তার টাকা কেন্দ্রের কাছে পাঠানো হয়। দাবিদার উপযুক্ত প্রমাণ দিলে তা ফেরত পেতে পারেন। ওই টাকার একটা অংশ আমানতকারীদের সচেতনতা বাড়াতে ব্যয় করা হয়।’

সন্দীপবাবুর দাবি, ‘শুধু ব্যাঙ্কে নয়, বিপুল টাকা দাবিহীনভাবে পড়ে রয়েছে বিভিন্ন সংস্থার আমানত প্রকল্পে। আগে থেকে উত্তরাধিকারীর নাম নথিভুক্ত করা জরুরি।’

শুক্রবার লোকসভায় অর্থ প্রতিমন্ত্রী শিব প্রতাপ শুক্ল জানান, ‘রিজার্ভ ব্যাঙ্কের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, গত অর্থবছরে শুধু জালিয়াতির জেরে ১৬,৭৮৯ কোটি টাকা হারিয়েছে ব্যাঙ্কগুলো। মাথাব্যথার বড় কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে সাইবার হানাও। সব মিলিয়ে অতিরিক্ত ঝামেলা মনে করছে ব্যাঙ্কগুলো।
ফেমাসনিউজ২৪/এফএম/এমএম