logo

মঙ্গলবার, ২২ মে ২০১৮ | ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫

header-ad

শাড়ি পরে ১৩ হাজার ফুট থেকে মহিলার ঝাঁপ, ভিডিও ভাইরাল!

অন্যরকম খবর ডেস্ক | আপডেট: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

সর্বত্রই শাড়ি পরে যাওয়া যায়। যারা এ পোশাকে আরও স্বচ্ছন্দ্য তারা তো এতে দৌড়ঝাঁপও করতেই পারেন। কিন্তু ১৩ হাজার ফুট উচ্চতা থেকে কেউ ঝাঁপ দিতে পারে? ৩৫ বছরের শীতল মহাজন রাণে তাই করে দেখিয়েছেন। শাড়ি পরেই প্যারাশুট নিয়ে বিমান থেকে লাফ দিয়েছেন পদ্মশ্রী প্রাপ্ত এই স্কাইডাইভার। শাড়ি পরে সফলভাবে স্কাইডাইভ করার কৃতিত্ব প্রথম অর্জন করলেন তিনি।

স্কাইডাইভিং বরাবরে নেশা শীতলের। তেমনই সাজতে পছন্দ করেন পুণের বাসিন্দা। আর শাড়ি পরতে সবচেয়ে ভালোবাসেন। দুই ভালোবাসার মেলবন্ধনই ঘটাতে চেয়েছিলেন। চেয়েছিলেন নারী দিবসের আগে সারাবিশ্বের সামনে ভারতীয় নারীর ঐতিহ্যকে তুলে ধরতে।

এর জন্য কিছুদিন আগেই থাইল্যান্ডে পৌঁছে যান তিনি। সেখানে বেশ কয়েকদিন ধরে অনুশীলন চলে। থাইল্যান্ডের হাওয়ার জোর বেশি। তাই এ ডাইভিং বেশ কঠিন ছিল। এর জন্য বিশেষ শাড়ি পরতে হয়েছে তাকে। গোলাপি রঙের শাড়িটি প্রায় ৮.২৫ মিটার লম্বা, যা সাধারণ শাড়ির থেকে একটু বেশিই লম্বা।

এর উপরেই প্যারাশুটের ব্যাগ ও বাকি সেফটি গিয়ার ছিল। তা নিয়েই ১৩ হাজার ফুট উপর থেকে ঝাঁপ দেন শীতল। মাটিতে পড়ে প্রথমে একটু অসুবিধা হয়েছিল তার। তবে তা সামলে হাসিমুখেই ডাইভিং শেষ করেন পদ্মশ্রী। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমেই সবার সঙ্গে শেয়ার করে নিয়েছেন সেই ভিডিও।

শাড়ি নিয়ে আজকের প্রজন্মের ধারণা ভাঙা উচিত। এমনটাই মনে করেন শীতল। যে শাড়ি পরে ভারতীয় নারীরা এক সময় যুদ্ধে পর্যন্ত লড়েছেন, সে শাড়ি ঠিকভাবে পরতে পারলে ১৩ হাজার ফুট উচ্চতা থেকে ঝাঁপ দেয়া যায়। এটাই প্রমাণ করতে চেয়েছিলেন শীতল। তা প্রমাণও করলেন তিনি।
ফেমাসনিউজ২৪/এফএম/এমএম