logo

মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ১০ আশ্বিন, ১৪২৫

header-ad

দুর্ঘটনায় মা-বাবার মৃত্যু, ৪ বছর পর শিশুর জন্ম!

অন্যরকম ডেস্ক | আপডেট: ১২ এপ্রিল ২০১৮

আজব ঘটনা ঘটে চলেছে এ পৃথিবীতে। কোনোটা কাকতালীয়, আবার কোনোটা ভড়কে যাওয়ার মতো। সম্প্রতি চীনে এমনই এক ঘটনার সাক্ষী হলেন দেশবাসী। গাড়ি দুর্ঘটনায় মা-বাবার মৃত্যুর চার বছর পর একটি শিশুর জন্ম হলো!

স্থানীয় গণমাধ্যম জানায়, চীনের জিয়াংশু প্রদেশের ইয়েশিংয়ে ২০১৩ সালের মার্চ মাসে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হন শেন লি এবং লিউ শি নামের এক দম্পতি। কিন্তু মৃত্যুর আগে নিজেদের ডিম্বাণু এবং শুক্রাণু আইভিএফ এর মাধ্যমে সন্তান জন্মদানের জন্য সংগ্রহ করে রেখেছিলেন।

আইভিএফ মানে হলো ইন ভিট্রো ফার্টিলাইজেশন, যে প্রক্রিয়ার ডিম্বাণু ও শুক্রাণু আলাদা করে সংগ্রহ করে বাইরে টেস্টটিউবের মাধ্যমে অথবা গর্ভ ভাড়া করে অন্য একজনের গর্ভে প্রতিস্থাপন করা হয়। এর মাধ্যমে সন্তান জন্মদান হয়।

আইনি জটিলতার কারণে শিশুটি চীনের কোনো নারীর গর্ভে জন্মগ্রহণ করতে পারেনি। তবে জন্মদান প্রক্রিয়াটির অনুমতি পাওয়ার জন্য দম্পতির পিতা-মাতাকে দুটি ভিন্ন ভিন্ন মামলা লড়তে হয়েছিল। মামলা লড়তে হয়ে। কারণ চীনে এ সংক্রান্ত কোনো আইন এখনো চালু হয়নি।

চীনে গর্ভ ভাড়া করা আইনত দণ্ডনীয়, তাই দম্পতির পিতামাতা পার্শ্ববর্তী দেশ লাওস থেকে ২৭ বছর বয়স্ক এক নারীর গর্ভ ভাড়া নেন। ছেলে সন্তানটির নাম রাখা হয় শিয়ায়েনশিয়ান, মান্দারিন ভাষায় যেটার অর্থ মিষ্টি। ছেলেটির জন্মের পর মৃত ওই দম্পতির পিতা-মাতা খুবই খুশি।

ছেলেটির নানি হু শিংশিয়াং সংবাদমাধ্যমকে জানান, সে সবসময়ই হাসিমুখে থাকে। তার চোখ হয়েছে আমার মেয়ের মতো; তবে দেখতে বাবার মতো হয়েছে। শিশুটি বড় হলে তার জন্মের এই ঘটনাটি তাকেও জানানো হবে।

ফেমাসনিউজ২৪.কম/আরআই/আরবি