logo

মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৮ | ১ কার্তিক, ১৪২৫

header-ad

কপালে টিপ পরায় পেনশন পেলেন না মহিলা!

অন্যরকম খবর ডেস্ক | আপডেট: ১৭ এপ্রিল ২০১৮

কপালে টিপ পরার কারণে পেনশন পেলেন না এক মহিলা! ৭৭ বছর বয়সী বিধবা হয়েও কপালে টিপ পরেছিলেন তিনি। এ কারণে এক বৃদ্ধাকে পেনশন দেননি সরকারি কর্মকর্তারা।

ভারতের চেন্নাইয়ের ওই নারী নিজের ছেলে ও পুত্রবধূর সঙ্গে মৃত স্বামীর পেনশন তুলতে যান। কিন্তু সরকারি কর্মকর্তারা তাকে অপমান করে পেনশন দিতে অস্বীকার করেন। তারা এ কথাও বলেন, বিধবা হয়ে তিনি কী করে কপালে টিপ পরলেন?

ওই নারীর স্বামী পোর্ট ট্রাস্টের ইলেকট্রিক্যাল ও মেকানিক্যাল দফতরে কাজ করতেন। গত মার্চে ৮২ বছর বয়সে মারা যান তিনি। সরকারি আইন অনুযায়ী, স্বামীর পেনশনের ৭০ শতাংশ টাকা পান বিধবা।

স্বামীর মৃত্যুর পর পোর্ট ট্রাস্টের ইলেকট্রিক্যাল ও মেকানিক্যাল দফতর বিধবাকে দ্রুত পেনশন-সংক্রান্ত সব কাজ সম্পন্ন করতে চাপ দেয়।

বৃদ্ধা তার ছেলে ও পুত্রবধূকে নিয়ে দফতরে যান। কিন্তু সেখানে যাওয়ার পর কর্মকর্তারা তার সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন এবং পেনশন দিতে অস্বীকার করেন।

এ ব্যাপারে বৃদ্ধার পুত্রবধূ সাংবাদিকদের বলেন, আমরা যখন সংশ্লিষ্ট দফতরে যাই, তখন পেনশন বিভাগের কর্মকর্তারা ঘুমাচ্ছিলেন। এরপর ওই কর্মকর্তাকে পেনশনের ফর্ম এবং অন্য দরকারি তথ্য দিই। তখন তিনি আমার শাশুড়ির চার মাস আগে তোলা একটি ফটো প্রথমে মনোযোগ দিয়ে দেখেন।

'ফটো দেখে তিনি বলেন, বিধবা মহিলা হয়ে টিপ কী করে পরতে পারেন? এরপর ওই কর্মকর্তা পেনশন দিতে অস্বীকার করেন।

পেনশন কর্মকর্তার কাছে এভাবে অপদস্থ হওয়ার পর ওই নারী বাড়ি ফিরে যান। পরের দিন নতুন ছবি তুলে ওই কর্মকর্তাকে দেন তিনি।
ফেমাসনিউজ২৪/এফএম/এমএম