logo

শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৬ আশ্বিন, ১৪২৫

header-ad

তরুণীর ম্যাজিক! নিমিষেই বলে দিচ্ছেন ‘গোপন’ কথা

অন্যরকম ডেস্ক | আপডেট: ১২ আগস্ট ২০১৮

তিনিই নাকি ভারতের প্রথম টেস্টটিউব বেবি! তার উইকিপিডিয়ার পাতায়ও সে কথা লেখা। এককালে কথাটি সত্যি ছিল ঠিকই। কারণ তার জন্মের পর দীর্ঘদিন স্বীকৃতি মেলেনি চিকিৎসক সুভাষ মুখোপাধ্যায়ের। কিন্তু ‘দুর্গা’দেশের প্রথম টেস্টটিউব বেবির স্বীকৃতি পাওয়ার পর থেকে এ তালিকায় তিনিই যে দেশের দ্বিতীয়, তা নিয়ে সন্দেহ নেই।

এবার নামটি বলা যাক। ক্রুতি পারেখ। জন্ম ১৯৮৪ সালে, কলকাতায়। জন্মের মতোই ‘ম্যাজিক্যাল’তার পরবর্তী জীবনও। মুম্বইয়ের এই তরুণীর কাজ মানুষের মন নিয়ে। তিনিই এশিয়ার একমাত্র মহিলা ‘মেন্টালিস্ট’।

ভেঙে পড়া মানুষকে চাঙ্গা করতে কিংবা জীবনের অর্থ নতুন করে খুঁজে দিতে তার তুরুপের তাস হলো ম্যাজিক! অল্প বয়স থেকেই তিনি ভেলকি দেখিয়ে আসছেন মঞ্চে। এখন সেই ম্যাজিক কাজে লাগাচ্ছেন নানা জরুরি কাজে। কর্পোরেট কর্মী কিংবা অটিস্টিক শিশুদের কাছে জীবনের নতুন মানে তুলে ধরছে ক্রুতি পারেখের জাদু!

বিল ক্লিন্টন থেকে ওয়েন জিয়াবাও, ক্যাটরিনা কাইফ থেকে হৃত্বিক রোশন— খ্যাতনামা বহু মানুষকেই তিনি মুদ্ধ করেছেন তার হাতের জাদুতে। সম্প্রতি ঘুরে গেলেন কলকাতা থেকেও। এক অনুষ্ঠানে এসে এক ধারসে বলতে থাকেন উপস্থিত মানুষের মনের কথা! কার মনের গহীনে কী কাজ করে যাচ্ছে, সে সবের ইঙ্গিত দিয়ে বিস্মিত করলেন কলকাতাবাসীকে।

হ্যারি পর্টারের হগওয়ার্ট স্কুলের কথা কে না জানে! ক্রুতি বাস্তবেই বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ্যক্রমে ‘ম্যাজিক’বিষয়টির অন্তর্ভুক্তির ব্যবস্থা করেছেন। তার তত্ত্বাবধানে মুম্বাই বিশ্ববিদ্যালয়ে চালু হয়েছে জাদুবিদ্যার বিশেষ কোর্স, জানালেন ক্রুতি।

পেশাদার কিংবা শখের জাদুকর— সবার জন্যই এই কোর্সের দরজা খোলা। খুব কাছ থেকে ম্যাজিকের প্রতিটা অনুষঙ্গ এখানে ধরার চেষ্টা করা হয়। তাস, মুদ্রা প্রভৃতি নানা ধরনের ম্যাজিকেরই ব্যবস্থা রয়েছে, জানালেন তিনি।

ফেমাসনিউজ২৪.কম/আরআই/আরবি