logo

মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮ | ২৯ কার্তিক, ১৪২৫

header-ad

অদ্ভুত, রূপসী রাণীর ছাগল রাজা!

অন্যরকম ডেস্ক | আপডেট: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ছাগল নাকি দেশের রাজ! বিশ্বাস হচ্ছে না? হ্যাঁ, আসলে কিন্তু তাই। আয়ারল্যান্ডের কিলোরগন শহরের রাজা এখন ছাগল। তিনি রূপসী রাণীর পাশে মাথায় রাজমুকুট পড়ে রাস্তায় হেঁটে যাচ্ছেন।

শুধু তাই নয়, ছাগল রাজাকে সেদেশের মানুষজন সম্মানের সঙ্গে কুর্নিশ করছে! ভাবতে অদ্ভুত লাগলেও এমনটাই হয়ে আসছে আয়ারল্যান্ডজুড়ে। রাজার সিংহাসনে অধিষ্ঠান উপলক্ষে শহরজুড়ে সপ্তাহব্যাপী চলে এমন উৎসব।

উৎসবটিকে বলা হয় ‘পাক ফেয়ার’এবং রাজাকে ডাকা হয় ‘কিং পাক’। কিন্তু কেন এই উৎসব? যদিও অনেক গল্পে রঞ্জিত ইতিহাস।

বহুল প্রচলিত গল্পটি হচ্ছে- সপ্তদশ শতাব্দীতে আয়ারল্যান্ডের রাজা ছিলেন অলিভার করমওয়েল। তিনি বাস করতেন এই শহরে। এক ফসল কাটার উৎসবে অংশ নেয়ার সময় রাজার পোষা ও প্রিয় ছাগল হারিয়ে যায় পাহাড়ে। নিঃসন্তান সেই রাজা ছাগলটিকে সন্তানের মতো পালন করতেন।

সন্তান সমতুল্য ছাগল হারানোর শোকে অসুস্থ হয়ে পড়েন রাজা। এই অসুস্থতাই তাকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়। সেই ছাগল স্মরণে প্রতি বছর পাহাড় থেকে বন্য ছাগল ধরে এনে পাক ফেয়ারের মাধ্যমে তাকে রাজা বানানো হয়।

প্রতি বছর আগস্টের দ্বিতীয় সপ্তাহে এমন উৎসব শুরু হয়ে চলে সাত দিন পর্যন্ত। উৎসবের সপ্তাহ ছাগল রাজার মতোই আয়েশি ও সম্মানের জীবনযাপন করে থাকে। সাত দিন পার হওয়ার পর রাজত্ব ও রাণী হারালেও রয়ে যায় রাজার রেশ।

সেই বন্য ছাগল পায় রাষ্ট্রীয় বিশেষ অতিথিশালায় থাকার সুযোগ। মৃত্যু পর্যন্ত আয়েশিভাবেই শেষ হয় সেসব ছাগলের রাজকীয় জীবন!

ফেমাসনিউজ২৪.কম/আরআই/আরবি