logo

শুক্রবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | ৯ ফাল্গুন, ১৪২৫

header-ad

নর্দমা খুঁড়তেই ৩ হাজার বছরের স্বর্ণের ব্রেসলেট!

অন্যরকম খবর ডেস্ক | আপডেট: ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

এক কৃষক তার জমিতে মাটি খুঁড়ছিলেন, পাশেই ছিল একটি নর্দমা। আচমকাই একটা ধাতব শব্দ পেলেন তিনি। মিস্টার উইথড্র নামে এক সাফাইকর্মী ধাতব শব্দ শুনে আরও গভীরে কোদাল চালাতে শুরু করেন।

তখনই পেলেন ধাতব চারটি ব্রেসলেট। তিনিই এটি পেয়েছিলেন প্রথমে। তারপর তিনি সেটি বাড়িতে এনে পরিষ্কার করেন।

গয়না ব্যবসায়ী এক বন্ধুকে দেখালে মহিলা জানান, এটি অনেক পুরনো। এটি সোনার তৈরি। এর পর পুলিশে খবর দেন তারা।

প্রায় ২ ফুট গভীর গর্ত খোঁড়া হয়েছিল নিকাশি ব্যবস্থা ঠিক করার জন্য। একটি পাথরের নিচে ছিল এটি। চারটি ব্রেসলেটের ওজন প্রায় ৪৮ গ্রাম।

আয়ারল্যান্ডের ডোনেগাল-ডেরি সীমান্তের কাছে সোনার ব্রেসলেটটি মেলে। ইতিহাসবিদ ও প্রত্নতত্ত্ববিদরা এরই মধ্যে নড়েচড়ে বসেছেন এ বালাটি নিয়ে।

তাদের দাবি, এটি ব্রোঞ্জ যুগ বা তারও আগের সময়ের একটি প্রাচীন আমলের ব্রেসলেট। অর্থাৎ ১০০০ খ্রিস্টপূর্ব আমলের ব্রেসলেটটি অর্থাৎ প্রায় ৩০১৮ বছরের প্রাচীন এ ব্রেসলেট।ব্রেসলেটটির প্রকৃত বয়স জানার জন্য ডাবলিনে পাঠানো হয়েছে।

ডোনেগাল কাউন্টি থেকে পাওয়া পাকানো ধাতব রিংয়ের মতো দেখতে ব্রেসলেটটি আঙুলে পরার জন্য বেশ বড়, আবার হাতে পরার জন্য ছোট। এটা কি কোনও অল্পবয়সী যুবরাজ বা যুবরানির হাতের? এমনটাও বলছেন কেউ কেউ।

ডোনেগালের সংগ্রহশালায় এ ব্রেসলেট ফিরে আসুক গবেষণার পর, এমনটাই দাবি করেন স্থানীয় কিউরেটর কারোলিন কার। আয়ারল্যান্ডের ডাবলিনের সংগ্রহশালায় রাখা হয়েছে এটি। দর্শকরা ভিড় করছেন তা দেখার জন্য।
ফেমাসনিউজ২৪/এফএম/এমএম