logo

বুধবার, ২৩ মে ২০১৮ | ৯ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫

header-ad

এটিএম বুথে জাল নোট? কি করবেন জেনে নিন

ফিচার ডেস্ক | আপডেট: ১০ মে ২০১৮

এটিএম বুথ, টাকা সংগ্রহের ক্ষেত্রে জনপ্রিয় একটি মাধ্যম। কিন্তু এটিএম বুথে যদি নকল নোট হাতে আসে, তখন কি করণীয়?

কেননা সেই মুহূর্তে কেউ এর সাক্ষী যেমন থাকে না। তেমনই ওই মুহূর্তে একজন গ্রাহক ঠিক কি করবেন, তাও বুঝে উঠতে পারেন না।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এ নকল নোট রোধ করতে বিভিন্ন ধাপে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়। তারপরও যদি কোনো গ্রাহকের হাতে জাল নোট আসে, তাহলে বিপাকে পড়তে হয়। কেননা বিদেশে এটিএম রিসিপ্টে কারেন্সির নম্বর উল্লেখ থাকে। কিন্তু বাংলাদেশে শুধু কত টাকা তোলা হচ্ছে তার পরিমাণ উল্লেখ থাকে।

তারা আরও বলেন, এরকম সন্দেহ হলে প্রথমেই নোটটি সিসিটিভি-র সামনে ধরা উচিত। যাতে স্পষ্ট বোঝা যায় যে নোটটি এটিএম-থেকেই পাওয়া গিয়েছে। সঙ্গে সঙ্গে এটিএম-এ যে নিরাপত্তারক্ষী আছেন, তার কাছে নোটের ডিটেলস দিয়ে অভিযোগ দায়ের করে রাখা শ্রেয়। এতে নোটটি এটিএম থেকে কোন সময়ে বেরিয়েছে, তা স্পষ্ট হবে। পাশাপাশি যে ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট আছে, সেখানেও সঙ্গে সঙ্গে অভিযোগ জানিয়ে রাখতে হবে। প্রয়োজন হলে রিজার্ভ ব্যাংকেও। এ ছাড়া পুলিশের কাছেও অভিযোগ দায়ের করতে হবে।

তদন্ত চলাকালীন সিসিটিভি ফুটেজই প্রমাণ করবে নোটটি এটিএম থেকে বেরিয়েছে। প্রমাণ দেবে নিরাপত্তারক্ষীর কাছে জমা হওয়া অভিযোগও। একই সঙ্গে ব্যাংকও জানাবে যে গ্রাহক, এই অসুবিধার কথা আগেই তাদের জানিয়েছেন। ফলে বিষয়টি প্রমাণে সহজ হয়ে যাবে।

ফেমাসনিউজ২৪.কম/আরআই/আরবি