logo

শনিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | ১১ ফাল্গুন, ১৪২৫

header-ad

মৃত মায়ের পাশে ঘুমিয়ে পড়লো ছেলে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | আপডেট: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

শ্বাস চলছে কোনও রকম। দু’পা প্রায় অসাড়। অবলম্বন বলতে পাঁচ বছরের একমাত্র ছেলে।

এভাবেই কোনও মতে হাসপাতালের এমার্জেন্সিতে নিজেকে টেনে এনেছিলেন মহিলা। মৃত্যু তখন মাত্র আধ ঘণ্টা দূরে। চিকিত্সকদের চেষ্টা সত্ত্বেও যখন মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছে মা, পাশে ক্লান্ত শরীরে তত ক্ষণে নিশ্চিন্তে ঘুমিয়ে পড়েছে ছেলে। হোক না নিথর, তবু তো মায়ের শরীরের স্পর্শেই ঘুম।
গতকাল সোমবার রাত সাড়ে ১১টা নাগাদ এ ভাবেই শেষ মুহূর্তে মাকে নিয়ে ওসমানিয়া জেনারেল হাসাপাতালের জরুরি বিভাগে এসেছিল ছেলেটি। মহিলাকে বাঁচাতে না পেরে পুলিশে খবর দেন চিকিত্সকরাই। সঙ্গে প্রাপ্তবয়স্ক কেউ না থাকায় হেল্পিং হ্যান্ড ফাউন্ডেশন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার দ্বারস্থ হন হাসপাতালের কর্মীরা। ছেলের কাছ থেকেই পাওয়া যায় মৃত মহিলার পরিচয়। তার নাম সমিনা সুলতানা, পেশায় নির্মাণকর্মী।
হেল্পিং হ্যান্ড ফাউন্ডেশনের সদস্য মুজতবা হাসান আসকরি জানান, তিন বছর আগেই সুলতানাকে ছেড়ে চলে যান স্বামী। রাজেন্দ্রনগরে কোনও এক পুরুষের সঙ্গে থাকলেও তিনি তাকে হাসপাতালের বাইরে ছেড়েই চলে যান।
পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মৃত্যুর ১৮ ঘণ্টা পর জাহিরবাদে সুলতানার বাবা-মায়ের হাতে দেহ তুলে দেন হেল্পিং হ্যান্ড ফাউন্ডেশনের সদস্যরা। শিশুটিকে তার মামার কাছে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।
ফেমাসনিউজ২৪/এসআর