logo

বুধবার, ২৩ মে ২০১৮ | ৯ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫

header-ad

ধর্ষণ মামলায় ‘ধমগুরু’র রায় আজ, কড়া নিরাপত্তা রাজ্যে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | আপডেট: ২৫ এপ্রিল ২০১৮

১৬ বছরের কিশোরী ধর্ষণের দায়ে অভিযুক্ত স্বঘোষিত ধর্মগুরু আসারাম বাপুর বিরুদ্ধে রায় ঘোষণা করা হবে আজ বুধবার।

পাঁচ বছর আগে ওই ধর্মগুরুর বিরুদ্ধে এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে। বাপুর রায় ঘিরে কঠোর নিরাপত্তাব্যবস্থা নেয়া হয়েছে যোধপুরে।

জানা যায়, প্রায় ৪০০-রও বেশি আশ্রম রয়েছে এই স্বঘোষিত ধর্মগুরুর। ভক্তসংখ্যাও বহু। ২০১৩ সালে এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে ধর্মগুরুর বিরুদ্ধে। চার্জশিটে ধর্ষণের দায়ে অভিযুক্ত করা হয় তাকে। এ ছাড়া পাচার চক্র ও শিশুদের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগও রয়েছে ধর্মগুরুর বিরুদ্ধে। তবে আজ মামলার রায়ে দোষী সাব্যস্ত হলে ন্যূনতম ১০ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে ৭৭ বছর বয়সী এই স্বঘোষিত ধর্মগুরুর।

গত পাঁচ বছরে এই মামলার একাধিক সাক্ষীর কাকতালীয়ভাবে মৃত্যুও হয়েছে। ৯ জন সাক্ষীর ওপর বিভিন্ন সময় আক্রমণ নেমে এসেছে। তাদের মধ্যে তিনজন প্রাণ হারিয়েছেন। আসারামের ব্যক্তিগত চিকিৎসক অম্রুত প্রজাপত, রাঁধুনি অখিল গুপ্তা ও অপর এক সাক্ষী ক্রিপাল সিংকে গুলি করে খুন করা হয়। হাই প্রোফাইল এই মামলা ঘিরে ইতোমধ্যে প্রায় দুর্গের চেহারা নিয়েছে যোধপুর।

এদিকে রায় ঘিরে কেন্দ্রের নির্দেশে সর্বত্র নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। যে কিশোরীকে ধর্ষণের দায়ে অভিযুক্ত আসারাম, তিনি থাকেন উত্তরপ্রদেশে। সেখানেও নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। সকাল থেকেই ভক্তদের আনাগোনা শুরু হয়েছে। হাতের সামনেই রয়েছে গুরমিত কাণ্ডের নিদর্শন। স্বঘোষিত সেই ধর্মগুরুকে শাস্তি দিতে গিয়ে অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে গোটা হরিয়ানা।

বিশেষ সামার কোর্টে উঠছে এই মামলা। বিচারক তাই সকাল সকাল সকাল উপস্থিতই হয়েছেন। ১টার মধ্যেই মামলার রায় ঘোষণা হবে। অর্থাৎ আসারাম ধর্ষণে দোষী সাব্যস্ত হল কিনা এবং কী সাজা হবে তা বেলা থাকতেই জানা যাবে। এর মধ্যে ভক্তদের তাণ্ডব শুরু হতে পারে। তিন রাজ্যের সরকারকেই তাই এ ব্যাপারে সতর্ক করা হয়েছে। কোনো হিংসার ঘটনা যাতে না ঘটে, সে ব্যাপারে কড়া নজর রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ফেমাসনিউজ২৪.কম/আরআই/আরবি