logo

রবিবার, ২২ জুলাই ২০১৮ | ৭ শ্রাবণ, ১৪২৫

header-ad

গৃহবধূকে কালো নিয়ে কটাক্ষ করায় ৫ জনকে হত্যা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | আপডেট: ২৪ জুন ২০১৮

গায়ের রঙ কালো বলে শ্বশুরবাড়ির মানুষজনের কটাক্ষ সহ্য করতে না পেরে প্রজ্ঞা সারভাস (২৮) নামে এক ভারতীয় নারীর খাবারে বিষ মেশানোর ঘটনায় তিন শিশুসহ পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। ওই ঘটনায় গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছেন আরো ১২০ জন।

জানা গেছে, ভারতের মহারাষ্ট্রের রাইগাদ জেলার খালাপুর গ্রামে চলতি মাসের ১৮ তারিখ এ ঘটনাটি ঘটে। তবে স্থানীয় পুলিশ সূত্রে ঘটনাটি গতকাল শনিবার জানা যায়।

অভিযুক্ত প্রজ্ঞা সারভাসে নামের ওই গৃহবধূকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পুলিশের দাবি, গ্রেপ্তারের পর প্রজ্ঞা খাবারে বিষ মেশানোর কথা স্বীকার করেছেন।

প্রজ্ঞার ভাষ্য, দুই বছর আগে সুরেশ গোবিন্দ সারভাসের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। কিন্তু তারপর থেকেই তাকে কালো বলে নানা রকম কথা শোনাতেন স্বামীসহ শাশুড়ি সিন্ধু সারভাসে, বিবাহিত দুই ননদ এবং অন্য প্রায় সব আত্মীয়রাই। পাশাপাশি তার রান্না নিয়েও নানা রকম কথা শোনাত তারা। সেই রাগ ও অভিমানেই শ্বশুরবাড়ির লোকজনকে খুনের চেষ্টা করেন তিনি।

প্রজ্ঞা আরো জানায়, সোমবার তাদের এক আত্মীয় অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। তাতে শতাধিক আত্মীয়-পরিজনের সঙ্গে প্রজ্ঞার পরিবারের লোকজনকেও নিমন্ত্রণ করেন। অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে প্রজ্ঞা গোপনে ডালের মধ্যে সাপ মারার বিষ মিশিয়ে দেন। লুকিয়ে বাড়ি থেকে ওই বিষ নিয়ে গিয়েছিলেন তিনি।

এদিকে ওই অনুষ্ঠানে খাওয়ার পরপরই শ্বাসকষ্ট, বমি ও পেটে ব্যথার মতো উপসর্গ শুরু হয় অনেকের। একে একে অসুস্থ হয়ে পড়েন ১২০ জন। তাদের স্থানীয় দু’-তিনটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। গত কয়েক দিনে তাদের মধ্যে পাঁচ জনের মৃত্যু হয়।

রাইগাদ পুলিশের সুপারিন্টেনডেন্ট অনিল পারাস্কার জানান, বৈবাহিক ও পারিবারিক বিরোধের জের ধরেই নারীটি অপরাধটি করেছে বলে স্বীকার করেছে। তদন্ত শেষ হলে আরো কিছু বেরিয়ে আসতে পারে।

ফেমাসনিউজ২৪.কম/জেডআর/এফআর