logo

সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯ | ৬ কার্তিক, ১৪২৬

header-ad

বিমান চালাতে চালাতে ককপিটে পাইলটের ঘুম!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | আপডেট: ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

বিমানে কয়েকশ' যাত্রী। বিমান চালাতে চালাতে ককপিটে ঘুমিয়ে পড়েন পাইলট। ভাগ্য ভালো, কোনও দুর্ঘটনা ঘটেনি। পাইলট যখন ঘুমে ঢুলে পড়ছেন, তখন কো-পাইলট ব্যস্ত ছিলেন সিনিয়রের ঘুমের ভিডিও তুলতে। এমন ঘটনা ঘটেছে চীনা এয়ারলাইন্সের বোয়িং ৭৪৭ বিমানে।

দূরপাল্লার অধিকাংশ বিমানই নিরাপদ উচ্চতায় উঠে যাওয়ার পর অটো-মোড অর্থাৎ স্বয়ংক্রিয় প্রক্রিয়ায় চালানো হয়। কিন্তু যেকোনও আপৎকালীন পরিস্থিতির জন্য ককপিটে পাইলটের উপস্থিতি প্রয়োজন হয়। তাকে সহযোগিতার জন্য আবশ্যক কো-পাইলট বা সহকারীর, যাতে কোনও জরুরি অবস্থায় পাইলটকে তিনি সাহায্য করতে পারেন, পরিস্থিতি সামাল দিতে পারেন।

কিন্তু চায়না এয়ারলাইন্সের ক্ষেত্রে এর কোনোটাই হয়নি। পাইলটকে সজাগ করা দূরে থাক, তার ছবি তুলতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন কো-পাইলট। যে চালক ঘুমিয়ে পড়েন, তার নাম ওয়াং জিয়াকি। তিনি চায়না এয়ারলাইন্সের সিনিয়র পাইলট।

গত ২০ বছর ধরে ওই এয়ারলাইন্সের হয়ে বিমান চালাচ্ছেন তিনি। তার পরেও বিমান চালাতে গিয়ে ককপিটে বসে ঘুমিয়ে পড়ার ঘটনা তিনি কীভাবে ঘটালেন তা নিয়ে এরই মধ্যে শোরগোল পড়ে গেছে। কো-পাইলটের তোলা ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়।

একটি টেলিভিশন চ্যানেলও তা প্রচার করে। এর পরই তড়িঘড়ি ওয়াং জিয়াকি ও তার সহকারীকে ডেকে পাঠিয়ে জবাবদিহি চাওয়া হয়। পাইলটকে সাসপেন্ডও করা হয়েছে কিছু সময়ের জন্য।

তবে ঠিক কবে এ ঘটনা ঘটেছে তা নিয়ে স্পষ্ট কোনও জবাব মেলেনি। ঘটনাটি গত সপ্তাহের বলে জানা গেছে। ওয়াং জিয়াকির পাশাপাশি কো-পাইলট, যিনি ভিডিওটি তুলেছেন তাকেও সাসপেন্ড করা হতে পারে বলে খবর।

কিছুদিন আগে দীর্ঘসময় ধরে একটানা কাজ করা ও সেই কারণে বিমানচালকদের স্বাস্থ্যের সমস্যা নিয়ে সাতদিনের ধর্মঘট ডেকেছিলেন বিমানচালকরা। সেই ধর্মঘট শেষ হওয়ার পরই সামনে এসেছে এ ভিডিওটি। ফলে সেই ধর্মঘটের পক্ষেও ফের সওয়াল উঠছে।

চায়না এয়ারলাইন্সের তরফে দাবি করা হয়েছে, দোষী পাইলট নিজের ভুল স্বীকার করে নিয়েছেন। তবে বিমান চালাতে চালাতে পাইলটের ঘুমিয়ে পড়ার মতো ঘটনা এটাই প্রথম নয়। গত নভেম্বরে পাইলট ঘুমিয়ে পড়ায় অস্ট্রেলিয়ায় একটি বিমান গন্তব্য থেকে পঞ্চাশ কিলোমিটারের বেশি এগিয়ে গিয়েছিল।

তার আগে সেপ্টেম্বরে নিউ জার্সি থেকে গ্লাসগোগামী একটি বিমানের পাইলটও ককপিটে ঘুমিয়ে পড়েন, যা ঘিরে প্রচুর বিতর্ক হয়। তবে কোনও ক্ষেত্রেই কোনও দুর্ঘটনা ঘটেনি।
ফেমাসনিউজ২৪/এফএম/এমএম