logo

বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১ | ১৮ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮

header-ad

জোরপূর্বক বিয়েতে বাংলাদেশ তৃতীয়

ফেমাস নিউজ ডেস্ক | আপডেট: ৩০ মার্চ ২০১৪

জোরপূর্বক বিয়ের ক্ষেত্রে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান তৃতীয়। বিশ্বের ৭৪টি দেশের ওপর চালিত এক জরিপে এমন তথ্যই উঠে এসেছে। এছাড়া বাংলাদেশের ৬৬ ভাগ মেয়েদের বিয়ে হচ্ছে ১৮ বছরের বয়সের নিচে, যা বিশ্বে চতুর্থ সর্বোচ্চ। যুক্তরাজ্য সরকার পরিচালিত একটি জরিপের বরাত দিয়ে এসব তথ্য জানা যায়।

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রিটিশ ডেপুটি হাইকমিশনার নিক লো জানান, এ সংক্রান্ত যুক্তরাজ্যের বিশেষ ইউনিট গত বছর বিশ্বের ৭৪টি দেশে জোরপূর্বক বিয়ের তথ্য-প্রমাণ পেয়েছে। এর মধ্যে বাংলাদেশ তৃতীয় অবস্থানে।


সিলেটে স্কুলশিক্ষার্থীদের নিয়ে আয়োজিত 'জোরপূর্বক বিয়ের কুফল' শীর্ষক চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে জোরপূর্বক বিয়েকে একটি 'শাস্তিযোগ্য অপরাধ' উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ ধরনের ঘটনা অবশ্যই বন্ধ করতে হবে। যুক্তরাজ্য এটি কোনোভাবেই সমর্থন করে না। শনিবারের ওই আয়োজনে ঢাকাস্থ ব্রিটিশ হাইকমিশনের কনস্যুলার বিভাগের প্রধান হাসিনা রহমান অনুষ্ঠানে এ সংক্রান্ত একটি প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ।

নিক লো আরো বলেন, জোরপূর্বক বিয়ের মতো কর্মকাণ্ড তদারকির জন্য যুক্তরাজ্য সরকার ২০০৫ সালে একটি বিশেষ ইউনিট গঠন করে এবং ২০০৭ সালে এ সংক্রান্ত আইন প্রণয়ন করে। যুক্তরাজ্যে এ ধরনের কর্মকাণ্ড এখন দণ্ডণীয় অপরাধ। তিনি বলেন, বাংলাদেশে এ প্রবণতা রোধে সংশ্লিষ্টদের আরো বেশি নজর দিতে হবে।

সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে ব্রিটিশ হাইকমিশন আয়োজিত পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সিলেটের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। এছাড়া বিশেষ অতিথি ছিলেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আমিনুল হক ভুঁইয়া ও সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকী।