logo

মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ১০ আশ্বিন, ১৪২৫

header-ad

মাদারীপুরে রানা হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন

মহিবুল আহসান লিমন, মাদারীপুর | আপডেট: ১৫ এপ্রিল ২০১৮

মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার বাজিতপুর ইউনিয়নের কোদালিয়া গ্রামের বাসিন্দা মো. আক্কাস মৃধার বড় ছেলে মো. রানা মৃধা (২৬) নামে যুবককে হত্যা করা হয়েছে। প্রতিবাদে আজ রোববার মাদারীপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে শরীয়তপুর-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করে ২ ঘণ্টা মানববন্ধন করেন বিক্ষুব্ধ জনতা।

এ সময় তারা খুনিদের বিচার চেয়ে জেলা প্রশাসক বরাবর একটি স্রারকলিপি পেশ করেন।

নিহত রানার পরিবারের অভিযোগ, গত ৬ এপ্রিল রাতে রানাকে স্ত্রীর বাবার বাড়িতে ডেকে নেয়া হয়। ৭ এপ্রিল শনিবার সকাল আনুমানিক ৯তার দিকে তারা পরিকল্পিতভাবে তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়। নিহত রানার বাবা মো. আক্কাস মৃধাকে ফোনের মাদ্ধমে তার শাশুড়ি বলেন, তার ছেলে রানা আত্মহত্যা করেছে। সঙ্গে সঙ্গে নিহত রানার পরিবার ছুটে যায়। তারা দেখেন রানার গলায় গামছা দিয়ে ফাঁস লাগানো অবস্থায় মাটিতে পড়ে আছে।

এদিকে, এ ঘটনার পর এলাকাবাসী বিক্ষুব্ধ হয়ে হয়ে নিহত রানার শাশুড়ি ও রানার স্ত্রী মাহফুজা খন্দকার পিপাসাকে পুলিশে সোপর্দ করে। এ ঘটনায় রাজৈর থানায় একটি খুনের মামলা হয়েছে।
তবে ঘটনার দুই সপ্তাহ হতে চললেও মূল হোতা এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে। এতে ফুঁসে উঠেছে নিহতের আত্মীয়-স্বজন ও স্থানীয়রা। অতি দ্রুত মূলহোতাকে গ্রেপ্তার করা না হলে তারা বৃহৎ আন্দোলনের হুমকি দেন।

রাজৈর থানার পরিদর্শক (অপরেশন) ইমতিয়াজ আহমেদ জানান, এ ঘটনায় রানার মা রাজৈর থানায় ৫ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেছেন। আমরা ঘটনার দিন দুইজনকে গ্রেপ্তার করি। মামলার প্রধান আসামি রানার শ্বশুর জাহাঙ্গীর খোন্দকারসহ বাকি ২জনকে এখনো গ্রেপ্তার করা যায়নি।

ফেমাসনিউজ২৪.কম/আরআই/আরবি