logo

শনিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৮ | ৩ ভাদ্র, ১৪২৫

header-ad

ঈদের কেনাকাটায় গরিবদের ভরসা ফুটপাতের দোকান

মোহাম্মাদ মানিক হোসেন, চিরিরবন্দর(দিনাজপুর) প্রতিনিধি | আপডেট: ১৩ জুন ২০১৮

বর্তমান সমাজে বিভিন্ন শ্রেণির লোকজনের বসবাস। কেউ বিত্তবান, কেউ গরিব আবার কেউ-বা মধ্যবিত্ত। তারই প্রমাণ মিললো দিনজাপুরের চিরিরবন্দর গ্রামীণশহর ও উপজেলা সদর রোডের রাস্তার চারধারে।

চিরিরবন্দরের বিত্তবানদের কেনাকাটার স্হান হলো বড় বড় শপিংমল। আর তার বিপরীতে গরিব ও মধ্যবিত্তদের কেনাকাটা করা হয় ভ্রাম্যমাণ ফুটপাতের দোকানগুলোতে।

ঈদের বাকী আর মাত্র দুই দিন। তাই নতুন জামা কাপড় কেনাকাটার ধুম শুরু হয়ে গেছে চিরিরবন্দরের বড় বড় মার্কেট ও ফুটপাতের দোকানগুলোতে। গরিব অসহায়রা এসব নামীদামী মার্কেটে কেনাকাটা করতে পারলেও তাদের কেনাকাটা থেমে নেই। তারা ভিড় জমাচ্ছে ফুটপাত ও ভ্রাম্যমাণ মার্কেটসহ বিভিন্ন স্হানে।

রাণীরবন্দর সইয়ারী বাজারের রুপালী ব্যাংকের সামনে বসা ফুটপাতের ক্রেতা মো. শাহাজাহানের সাথে কথা বলে জানা যায়, ঈদ মানে খুশি। ঈদ মানে নতুন জামাকাপড় কেনা। আমরা গরীব মানুষ। আমাদের সামর্থ্য নাই দামি জামাকাপড় কেনা। তাই ফুটপাত ও রাস্তার বসা দোকানে আসছি। এখানেই আমাদের সামর্থ্যর মধ্যে কেনাকাটা করা যায়।

দিনমজুর আইজার রহমান বলেন, আমি ভাই সারাদিন যা আয় হয় তা বাজার করতেই শেষ। ঈদে বাচ্চাদের জামাকাপড় কিনে দিবো না বাজার করে খাবো? তাই অল্প আয়ে আমাদের কেনাকাটা এই ফুটপাতে।

এদিকে উপজেলার প্রাণকেন্দ্র রাণীরবন্দরে চলছে ঈদের জমজমাট বাজার। ঈদ ঘনিয়ে আসার সাথে সাথে জমে উঠছে ছোট ছোট মার্কেট ও শপিংমল গুলো। তবে ঈদ আসলে জেলার বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন ও সেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যদের গরীব অসহায়দের মাঝে ঈদসামগ্রী ও নতুন জামাকাপড় বিতরণ করতে দেখা যায়।

ফেমাসনিউজ২৪.কম/জেডআর/এফআর