logo

শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৭ আশ্বিন, ১৪২৫

header-ad

সেপটিক ট্যাংকে স্বর্ণ ব্যবসায়ীর তিন টুকরো লাশ

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি | আপডেট: ১০ জুলাই ২০১৮

নিখোঁজ হওয়ার ২২ দিন পর সেপটিক ট্যাংকে মিলল স্বর্ণ ব্যবসায়ীর তিন টুকরো লাশ। নারায়ণগঞ্জের স্বর্ণ ব্যবসায়ী প্রবীর চন্দ্র ঘোষের বস্তাবন্দি তিন টুকরো লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার রাত ১১টার দিকে নগরীর আমলাপাড়ায় একটি বাড়ির সেপটিক ট্যাংক থেকে তার লাশটি উদ্ধার করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা জেলা গোয়েন্দা পুলিশ উপ-পরিদর্শক (এসআই) মফিজুল ইসলাম। তিনি বলেন, দু'দিন আগে প্রবীর চন্দ্র ঘোষের ব্যবসায়িক অংশীদার পিন্টু দেবনাথ ও তার এক বন্ধুকে আটক করে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ।

মফিজুল ইসলাম বলেন, তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী নিহত প্রবীরের দোকানের পার্শ্ববর্তী পিন্টু দেবনাথের ভাড়াবাড়ির সেপটিক ট্যাংকে তল্লাশি চালিয়ে তিনটি বস্তায় তিন টুকরো লাশ উদ্ধার করা হয়। ব্যবসায়িক স্বার্থে তাকে খুন করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

গত ১৮ জুন রাত সাড়ে ৯টায় নগরীর কালীরবাজার এসি ধর সড়ক থেকে নিখোঁজ হন প্রবীর চন্দ্র ঘোষ। একদিন পর তার বাবা ভোলানাথ ঘোষ নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন।

এরপর প্রবীর চন্দ্র ঘোষকে উদ্ধারের দাবিতে প্রশাসনের কাছে স্মারক লিপি, মানববন্ধন ও কর্মবিরতি পালন করেন স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা। পরে প্রবীর চন্দ্র ঘোষের ব্যবসায়িক পার্টনার পিন্টু দেবনাথ ও তার এক বন্ধুকে আটক করা হয়।
ফেমাসনিউজ২৪/প্রতিনিধি/এফএম/এমএম