logo

শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৭ আশ্বিন, ১৪২৫

header-ad

চেকপোষ্টে দেড় কোটি মূল্যের সোনাসহ যাত্রী আটক

শামসুজ্জোহা পলাশ, চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি | আপডেট: ১১ জুলাই ২০১৮

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনা সীমান্ত চেকপোষ্টে কাষ্টমস ক্লিয়ারেন্স নিতে গিয়ে প্রায় দেড় কোটি টাকা মূল্যের স্বর্ণসহ দুই পাচারকারীকে আটক করেছে শুল্ক গোয়েন্দা দল। উদ্ধার করা ৮ টি সোনার বারে ২ কেজি ৫’শ ৯৪ গ্রাম সোনা রয়েছে

আজ বুধবার বিকেল ৪টার দিকে সোনাসহ ওই দুইজন ভারতগামী যাত্রীকে আটক করে শুল্ক গোয়েন্দার কর্মকর্তারা।

আটক দুই পাচারকারী হলো- ঢাকা নবাবগঞ্জের চান্দামাত্রা গ্রামের কোসাই মন্ডলের ছেলে দিপক মন্ডল (৫১) ও একই গ্রামের জোগেশ মল্লিকের ছেলে প্রভাত মল্লিক (৪৫)। এরা সোনা পাচারকারী চক্রের সক্রিয় সদস্য।

বেনাপোল শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত সেলের উপ পরিচালক মো. সাইফুর রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার দুপুরে বেনাপোল শুল্ক গোয়েন্দা দলের ৮ সদস্যর একটি টিম দর্শনা আইসিপি চেকপোস্টে অবস্হান করছিল। বিকেল ৪ টার দিকে ভারতগামী বাংলাদেশী নাগরকি দিপক মন্ডল ও প্রভাত মল্লিক কাষ্টমস ক্লিয়ারেন্স নিতে গেলে তাদেরকে আটক করে বেনাপোল শুল্ক গোয়েন্দা টিম।

পরে সাংবাদিক ও স্হানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্হিতিতে তাদের শরীর তল্লাশি করে দিপক মন্ডল ও প্রভাত মল্লিকের পরনের (আন্ডারওয়ার) জাঙ্গিয়ার ভিতর থেকে ১ কেজি ওজনের দুইটি ও ছোট ৬ বার সোনা উদ্ধার করে।
আটককৃত স্বর্ণের মূল্য প্রায় দেড় কোটি টাকা।

এ বিষয়ে শুল্ক গোয়েন্দার সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা মো. সাজিবুল ইসলাম বাদী হয়ে আটককৃত দু’জনের বিরুদ্ধে সোনা পাচারের অভিযোগ এনে দামুড়হুদা মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

উদ্ধারকৃত সোনার বারগুলো দর্শনা কাষ্টমসে জমা দেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

ফেমাসনিউজ২৪.কম/জেডআর/এমআর