logo

বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২৮ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫

header-ad

ইউএনও'র ডাকে জঙ্গল পরিষ্কার

ইসমাইল হোসেন বাবু, কুষ্টিয়া: | আপডেট: ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮

কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল মারুফের ডাকে সাড়া দিয়ে সর্বস্তরের মানুষ পরিষ্কার করেছে ফারাকপুর রেলগেট থেকে ব্যাকাপুল সড়কের দু’পাশের ঝোঁপ জঙ্গল। আজ শুক্রবার দিন ব্যাপী সকালে থেকে শুরু করে জঙ্গল পরিষ্কারে স্বতর্স্ফুত ভাবে অংশ নেয় সাধারন মানুষ। স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে জঙ্গল পরিষ্কার অভিযানে প্রায় ৪০০ মানুষ অংশ নিয়ে প্রায় ১ কিলোমিটার জঙ্গল পরিষ্কার করে। ইউএনও’র এমন উদ্দ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে ভেড়ামারাবাসী।

ফারাকপুর রেলগেট থেকে ব্যাকাপুল সড়কের দু’পাশের ঝোঁপ জঙ্গল পরিষ্কার বিষয়ে গত ২৭ অগাষ্ট সোস্যাল মিডিয়া ফেসবুকে একটি স্টার্ট্যাস দেন ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল মারুফ। জঙ্গল পরিষ্কারের প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরে দেওয়া হয় ঘন জঙ্গলের কয়েকটি ছবি। ক্রাইম জোন হিসেবে খ্যাত ব্যাকাপুল’র জঙ্গল পরিষ্কারের প্রয়োজনীয়তা অনুভব করে স্থানীয়রা।

ওই পোষ্টটি ফেসবুকে ভাইরাল হয়। ঝড় ওঠে ফেসবুকে। স্বল্প সময়ে ষ্টাটার্সটিতে লাইক দেন ৫৬৪ জন। পোষ্ট টি শেয়ার করেন ৪৯ জন এবং মন্তব্য কলামে কমেন্ট দেন প্রায় ৮৫ জন ফেসবুকার। আজ শুক্রবার সকাল ৯টায় ছিল জঙ্গল পরিষ্কারের দিন। নির্বাহী অফিসার সোহেল মারুফ’র নেতৃত্বে সকাল ৯টার আগেই ব্যাকাপুল নামক স্থানে জোড় হতে থাকে বিভিন্ন স্তরের সর্ব সাধারন মানুষ। অংশনেয় বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, ফেসবুক এ্যাসোসিয়েশন ভেড়ামারার ফেবুল্যান্ডের সদস্যরা, আত্মমানবতার সেবায় কাজ করা সংগঠন রেসকিউ লাইফ ফাউন্ডেশন, সাংবাদিকরা।

জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আলীম স্বপন, মোকারিমপুর ইউনিয়ন পরিষদ’র চেয়ারম্যান আব্দুস সামাদ, বাহিরচর ইউনিয়ন পরিষদ’র চেয়ারম্যান রওশন আরা, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মাসুদ করিম এসময় উপস্থিত ছিলেন।

ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল মারুফ বলেছেন, ভেড়ামারা-গোলাপনগর সড়কটি অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ন এবং জনবহুল। ফারাকপুর রেলগেট থেকে ব্যাকাপুল পর্যন্ত সড়কের দুপাশে ঝোঁপ জঙ্গলে ভরপুর। ক্রাইম জোন হিসেবে পরিচিত এই ব্যাকপুলে জঙ্গলের কারনে যে কোন সময় অঘটন ঘটতে পারে। সেজন্যই জঙ্গল পরিষ্কারে সিদ্ধান্ত গ্রহন করায়। ফেসবুকে ষ্টার্টাস দেওয়ার পর ভেড়ামারাবাসীর ব্যাপক সাড়া পরে। সাড়া দেয় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এবং বিভিন্ন ব্যাক্তিরা। তাদের স্বতস্বফুত অংশ গ্রহনে জঙ্গল পরিষ্কার অভিযান চলছে।

তিনি বলেন, এটা একটি সামাজিক আন্দোলন। সংঘবদ্ধ ভাবে আমরা ভেড়ামারাবাসী ভেড়ামারার উন্নয়নের সব ধরনে পদক্ষেপ গ্রহন করবো।

ফেমাসনিউজ২৪.কম/কেআর/এস