logo

সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮ | ৫ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫

header-ad

বিয়ে করলেন চোখ হারানো তিতুমীরের সেই সিদ্দিকুর

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি | আপডেট: ১৭ অক্টোবর ২০১৮

বিয়ে করলেন পুলিশের টিয়ারশেলে চোখ হারানো সরকারি তিতুমীর কলেজের সেই শিক্ষার্থী সিদ্দিকুর রহমান। গত বছর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সাত কলেজের পরীক্ষা নেয়ার দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের সময় রাজধানীর শাহবাগে পুলিশের টিয়ারশেলে চোখ হারান তিনি।

১৫ অক্টোবর সোমবার সন্ধ্যায় গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহে দুই পরিবারের সম্মতিতে আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়ে সম্পন্ন হয়। কনে সুমাইয়ার বাড়ি ময়মনসিংহ জেলার ফুলপুর উপজেলার তিলাটিয়া গ্রামে। তারা সম্পর্কে খালাতো ভাই-বোন।

বিয়ে নিয়ে সিদ্দিকুর রহমান বলেন, পরিবারের পক্ষ থেকেই কনে ঠিক করা হয়। আমি এ ব্যাপারে কিছুই জানতাম না। রোববার রাতে ৪ দিনের ছুটি নিয়ে বাড়ি চলে আসি। বাড়িতে এসে বিয়ের বিষয়টি জানতে পারি।

তিনি বলেন, সোমবার বিকেলে উভয় পরিবারের সম্মতিতে বিয়ে হয়। পরদিন বউকে আমাদের বাড়িতে তুলে আনা হয়। সে এখন আমাদের নিজ বাড়িতেই থাকবে। পরে ঢাকায় ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়ে বউকে নিয়ে আসবো। কিছুদিনের মধ্যে ঢাকায় বিয়ের অনুষ্ঠান করা হবে।

সিদ্দিকুর রহমান বলেন, উভয় পরিবার রাজি থাকায় কোনো আপত্তি করিনি। নিজের পড়ালেখা চালিয়ে যাব।

সিদ্দিকুর রহমানের মা ছোলেমা খাতুনের বড় বোনের মেয়ে সুমাইয়া। সুমাইয়া একটি কওমি মাদরাসার শিক্ষার্থী। তার বাবা রহিম উদ্দিন কাজী স্থানীয় একটি মসজিদের ইমাম।

উল্লেখ্য, গত বছরের ১ অক্টোবর থেকে সরকারি প্রতিষ্ঠান এসেনশিয়াল ড্রাগস কোম্পানি লিমিটেডে টেলিফোন অপারেটর পদে চাকরি করছেন সিদ্দিকুর রহমান। চোখ হারানোর পর সরকারের পক্ষ থেকে তাকে চাকরি দেয়া হয়।
ফেমাসনিউজ২৪/ প্রতিনিধি/এফএম/এমএম