logo

বুধবার, ১৯ জুন ২০১৯ | ৫ আষাঢ়, ১৪২৬

header-ad

মাদারীপুরে এমপি হতে তদবির চালাচ্ছেন ৩ নেত্রী

মহিবুল আহসান লিমন, মাদারীপুর প্রতিনিধি | আপডেট: ১০ জানুয়ারি ২০১৯

মাদারীপুর ১,২ ও ৩ সংরক্ষিত মহিলা আসনে এমপি হওয়ার জন্য জোর লবিং ও তদবির চালাচ্ছেন আওয়ামী লীগের ৩ নেত্রী।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, জেলা আওয়ামীলীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক ও শ্রমিকলীগের সভাপতি হাজী মুহাম্মদ সুলতান হাওলাদার এর মেয়ে বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সমাজ কল্যাণ সম্পাদক ও মাদারীপুর প্রতিবন্ধী শিশু শিক্ষা ও সেবা সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা সাধারন সম্পাদক ও নির্বাহী পরিচালক ড. সেলিনা আক্তার। অন্যদিকে মাদারীপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট আবদুল লতিফের মেয়ে মাদারীপুর সদর উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদিকা হুমায়রা লতিফ পান্না এবং কালকিনি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অধ্যাপিকা তাহমিনা সিদ্দিকি সংরক্ষিত মহিলা আসনে এমপি হওয়ার জন্য জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

এদিকে এমপি প্রার্থী ড. সেলিনা আক্তার বলেন, আমি এমপি হবার মত যোগ্যতা রাখি। কারণ আমি সাধারন অসহায় গরিব দুঃখী মানুষের বন্ধু, তাদের কষ্ট আমি বুঝি। কারণ তাদের সাথে আমি সর্বদাই চলাফেরা করি। আর এই মানুষগুলোই আমাকে সাহস যুগিয়েছে। তারা সকলেই আমাকে এই সংরক্ষিত আসনে এমপি হিসেবে দেখতে চায়। এটা আমার দাবি না, এটা সকল মাদারীপুরবাসীর প্রাণের দাবি।

তিনি বলেন, আমি এমপি হতে পারবো কিনা তা জানিনা, তবে আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশ রত্ন শেখ হাসিনার কাছে অনুরোধ করবো, তিনি যেন সকল দিক বিবেচনা করে একজন সৎ, শিক্ষিত, সমাজসেবক এবং দায়িত্বশীল ব্যক্তিকেই এমপির দায়িত্ব দেন।

এ ব্যাপারে হুমায়রা লতিফ পান্না বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের আওয়ামীলীগের প্রতি আমার ও আমাদের পরিবারের অবদানকে বিবেচনায় নিয়ে আমাকে সংরক্ষিত আসনে এমপি হিসেবে মনোনয়ন দিবেন বলে আমি আশা করছি।

অধ্যাপিকা তাহমিনা সিদ্দিকি বলেন, আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে নমিনেশন চাইবো, দিলে এমপি হবো আর না দিলে হবো না।

মাদারীপুর জেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক গোলাম মাওলা বলেন, দলীয়ভাবে এখনও পর্যন্ত কাউকে বিবেচনা করা হয়নি। যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তারা ব্যক্তিগতভাবে কেন্দ্রে যোগাযোগ চালিয়ে যাচ্ছে। তবে কে এমপি হবেন সেটা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই ভাল জানেন।

ফেমাসনিউজ২৪.কম/আরআই/এমআরইউ