logo

শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৯ | ৬ বৈশাখ, ১৪২৬

header-ad

মামীর সঙ্গে ভাগ্নের পরকীয়া দেখে ফেলায় নানা খুন

ইসমাইল হোসেন বাবু, কুষ্টিয়া প্রতিনিধি | আপডেট: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

মামীর সঙ্গে ভাগ্নের পরকীয়া দেখে ফেলায় নাতির ছুরিকাঘাতে খুন হলেন নানা। এ ঘটনা ঘটেছে কুষ্টিয়ার খোকসায় রোবাবার রাতে। পুলিশ অভিযুক্ত নাতি নাঈম (২১) ও নিহতের পুত্রবধূ সামিয়াকে (৩৪) আটক করেছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, রোববার রাত ১১টার দিকে নাঈমের সঙ্গে তার মামী সামিয়ার অবৈধ পরকীয়া দেখে ফেলায় নানা মজিবুর রহমানকে ছুরিকাঘাতে খুন করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নাতি নাঈম ঘটনা স্বীকার করেছে বলে নিশ্চিত করেন খোকসা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এবিএম মেহেদী মাসুদ।

তিনি জানান, বেশ কিছুদিন ধরেই নিহত মজিবুর রহমানের বড় মেয়ের বড় ছেলে নাঈমের সঙ্গে মেজো ছেলের স্ত্রী সামিয়ার অবৈধ পরকীয়ার সম্পর্ক চলছিল। রোববার রাতে ঢাকা থেকে এসে নাঈম নানাবাড়ি যায়। মেজো মামা মাসুদের অনুপস্থিতিতে তার স্ত্রী সামিয়ার সঙ্গে পরকীয়ায় লিপ্ত হয় ভাগনে নাঈম।

এ সময় নানা মজিবুর রহমান দেখে ফেলেন। বিষয়টি প্রকাশ হয়ে যাওয়ার ভয়ে নাঈম তার নানাকে ঘর থেকে বারান্দায় বের করে বুকে ধারালো ছুরি দিয়ে আঘাত করে পালিয়ে যান। পরে মজিবুর রহমানকে উদ্ধার করে খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

খবর পেয়ে পুলিশ রাতেই নিজবাড়ী কুমারখালী থেকে নাঈমকে আটক করে। তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক নিহত মজিবুর রহমানের বাড়ি থেকে তার পুত্রবধূ সামিয়াকে আটক করে।

নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান ওসি।
ফেমাসনিউজ২৪/এফএম/এমএম