logo

এ বর্বরতার শেষ কোথায়?

পূর্বশত্রুতার জের ধরে কক্সবাজার শহরের ফদনার ডেইল এলাকায় সাদিয়া সুলতানা নুরী (৯) নামে এক শিশুর ওপর পৈশাচিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে।

গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নুরী একই এলাকার মো. ইলিয়াছের কন্যা ও কক্সন মাল্টিমিডিয়া স্কুলের ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রী। তবে ঘটনার বিষয়ে আহত শিশুর পরিবার ও এলাকার লোকজনের পরস্পরবিরোধী বক্তব্য পাওয়া গেছে। ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্ত ও জড়িতদের কঠোর শাস্তির দাবি উঠেছে।

আহত শিশু নূরী বলে, প্রতিবেশী রহমানের বিয়ে বাড়ি থেকে আসার পথে স্থানীয় সাজেদা বেগম সাজু আমাকে ডাক দেন। পরে তিনি আমাকে নিয়ে মহোছেন বৈদ্যর বাসায় ডুকে দরজা বন্ধ করে দেন।
সেখানে মহোছেন, রফিক ও সাজু আমাকে লোহার রড ও বেত দিয়ে ব্যাপক মারধর করে। চামচ গরম করে আমার শরীরের বিভিন্ন অংশে ছ্যাঁকা দেয়। মারধরের একপর্যায়ে আবারো তারা চামচ গরম করতে গেলে মহোছেন বৈদ্যর স্ত্রী দরজা খুলে আমাকে পালিয়ে যেতে বলে। তখন আমি দৌড়ে রাস্তায় এসে চিৎকার শুরু করি। আমার শোর চিৎকারে এলাকার লোকজন এগিয়ে আসে।

আহত শিশুর মা রোজিনা আক্তার দাবি করেন, তার মামলার আসামি সাজেদা বেগম ও তার সহযোগীরা তার মেয়ে সাদিয়া সুলতানা নুরীকে বেঁধে রেখে মারধর করে। পূর্বশত্রুতার জের ধরে তারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

বর্তমানে সে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। শিশুটির শরীরের বিভিন্ন অংশে মারধর ও আগুনের ছ্যাঁকা দিয়ে চামড়া তুলে নেয়ার ক্ষত রয়েছে। বর্তমানে ওর অবস্থা ভালো নয়।

এলাকার একজন রাজনৈতিক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন, উভয় পরিবারের মধ্যে পাল্টাপাল্টি অভিযোগে একাধিক মামলা রয়েছে। তাদের মধ্যে শত্রুতা দীর্ঘদিনের। আহত শিশুর মা রোজিনা আক্তার মাদক ব্যবসায়ী হিসেবে পরিচিত।

সম্প্রতি একটি মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে তিনি কারাভোগ করেন। তাই প্রতিপক্ষকে ফাঁসিয়ে প্রতিশোধ নিতে রোজিনাও এ ঘটনা ঘটাতে পারেন। এ বিষয়ে নিরপেক্ষ তদন্ত হওয়া দরকার।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী এসআই রাজিব পোদ্দার বলেন, নুরীকে অমানবিক ও পাশবিক নির্যাতন চালানো হয়েছে। অভিযোগ পাওয়া গেছে নির্যাতন চালিয়েছে মহোছেন বৈদ্য, আবছার ও আরো কয়েকজন।

কক্সবাজার সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মর্তা (ওসি) ফরিদ উদ্দিন খন্দকার বলেন, শিশুটিকে আমি দেখেছি। তার ওপর অমানবিক নির্যাতন চালানো হয়েছে। এ ঘটনা কারা ঘটিয়েছে, বিষয়টি তদন্ত করতে ও ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের আটক করতে পুলিশের তৎপরতা চালাচ্ছে।

ফেমাসনিউজ২৪.কম/আরআই/আরবি

#####|||||#####বর্বরতার শেষ কোথায়, কক্সবাজার, শিশুর ওপর নির্যাতন#####|||||#####বর্বরতার শেষ কোথায়, কক্সবাজার, শিশুর ওপর নির্যাতন