logo

শুক্রবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৮ | ৪ কার্তিক, ১৪২৫

header-ad

যে কারণে দ্রুতই নষ্ট হয় স্মার্টফোনের ব্যাটারি!

প্রযুক্তি ডেস্ক | আপডেট: ১২ জুন ২০১৮

স্মার্টফোনের ব্যাটারি সঠিকভাবে চার্জ করা না হলে কম সময়ে তা নষ্টও হয়ে যেতে পারে। তাই ফোনের ব্যাটারির দিকে একটু বিশেষ নজর দিতেই হয়। কিন্তু অনেকেই জানেন না কখন, কীভাবে ফোনটি চার্জ দিতে হবে। কিংবা, কোন চার্জার দিয়ে চার্জ দেয়া উচিত।

আর দেরি না করে চলুন জেনে নিই, ফোনের ব্যাটারি ভালো রাখার চমৎকার কিছু উপায়।

সারা রাত চার্জ নয়

রাতে ফোন চার্জে দিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। এতে ফোনটি সারা রাত ধরে চার্জ হয়। ফলে ওভার চার্জিং হয়ে থাকে। যা ফোনের জন্য মোটেও ভালো নয়। এছাড়া সারা রাত ফোনে চার্জে দেয়ার ফলে ব্যাটারি অতিরিক্তি গরম হয়ে বিস্ফোরণ ঘটতে পারে।

নিজস্ব চার্জার দিয়ে চার্জ দেয়া

ফোনের সাথে পাওয়া চার্জারে চার্জ দিলে ব্যাটারির আয়ু বাড়ে। এখন অবশ্য ফোনে চার্জ দেয়ার জন্য রয়েছে মাইক্রোইউএসবি পোর্ট। তাই যে কোনো চার্জার দিয়ে ফোনে চার্জ দেয়া যায়। তবে যদি চার্জিংয়ের সময় ফোনের নিজস্ব চার্জার ব্যবহার না করা হয় তাহলে ধীরে ধীরে ব্যাটারির চার্জ ধরে রাখার ক্ষমতা কমে যায়।

কখন চার্জে দিবেন ফোন

ফোনে ২০ শতাংশের ওপরে চার্জ থাকলে চার্জ দেয়া উচিত নয়। আবার ব্যাটারি চার্জ শূন্য করেও চার্জে দেয়া ঠিক নয়। কেননা, অপ্রয়োজনীয় রিচার্জে ব্যাটারির আয়ু কমে যায়। সেক্ষেত্রে কমপক্ষে ৫-২০ শতাংশ চার্জ থাকা অবস্থায় ফোন চার্জে দেয়া ভালো।

কেস খুলে রাখা

যখন ফোন চার্জে দেয়া হয় তখন ব্যাটারি কিছুটা গরম হয়ে যায়। ব্যাটারি গরমের প্রভাব ফোনে ছড়িয়ে পড়ে। তাই ফোনকে অতিরিক্ত গরমের হাত থেকে রক্ষা করতে চার্জে থাকা অবস্থায় ফোনের নিরাপত্তামূলক কেসিং বা কভার খুলে রাখা উচিত।

পাওয়ার ব্যাংক ব্যবহারের সময়

পাওয়ার ব্যাংকের মাধ্যমে চার্জ দেয়া অবস্থায় ফোন ব্যবহার করা উচিত নয়। কেননা, পাওয়ার ব্যাংকের সাহায্যে চার্জ করার সময় ব্যাটারি গরম হয়ে যায়। একই সময় ফোনটি ব্যবহার করলে তা আরও গরম হয়ে যাবে।

সস্তা চার্জার ব্যবহার না করা

অনেক সময় ফোনের জন্য নির্ধারিত চার্জারটি হারিয়ে বা নষ্ট হয়ে যেতে পারে। সেক্ষেত্রে অনেকেই বাজার থেকে সস্তা ও অখ্যাত ব্র্যান্ডের চার্জার কেনেন। এসব চার্জারে চার্জ দিলে ফোন অতিরিক্ত গরম হয়ে যায়। চার্জ হতেও সময় বেশি নেয়। আর অ্যাডাপ্টারে সমস্যা দেখা দিলে ফোন ও ব্যাটারি দু'টোই নষ্ট হতে পারে।

ব্যাটারি অ্যাপ্লিকেশন

ফোনের জন্য অনেক থার্ডপার্টি ব্যাটারি অপটিমাইজ অ্যাপ রয়েছে। এ অ্যাপগুলো ফোনের ব্যাকগ্রাউন্ডে চালু থাকে। এতে করে ফোনের চার্জ আরও বেশি ব্যয় হয়। এ ছাড়া লকস্ক্রিনটি অ্যাপগুলো এড লোড করে থাকে। তাই ফোনে আলাদা কোনো ব্যাটারি অ্যাপ ব্যবহার করা উচিত নয়।

ফেমাসনিউজ২৪.কম/আরআই/আরবি