logo

মঙ্গলবার, ২৬ মে ২০২০ | ১২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭

header-ad

ইন্টারনেট বন্ধ রাখায় গ্রাহকদের ভোগান্তি চরমে!

ফেমাসনিউজ ডেস্ক | আপডেট: ০১ জানুয়ারি ২০১৯

বিটিআরসি’র নির্দেশ অনুযায়ী ভোটের আগেরদিন শনিবার রাত থেকে মোবাইল ইন্টারনেটের থ্রি-জি ও ফোর-জি সেবা বন্ধ করে দেয়া হয়েছিলো। পরে ভোট শেষে রবিবার সন্ধ্যায় তা খুলে দেয়া হয় বলে জানানো হয়। তবে ভোটের পরদিনও মোবাইলে থ্রি-জি ও ফোর-জি ইন্টারনেট পাচ্ছেন না বলে জানান গ্রাহকরা।

বেশ কয়েকজন মোবাইল গ্রাহকের সাথে কথা বলে এ অভিযোগ পাওয়া গেছে। গ্রাহকরা বলছেন, কোনো ধরনের নির্দেশনা ছাড়াই ভোটের পরদিন সোমবার বন্ধ করে রাখা হয়েছে থ্রি-জি ও ফোর-জি মোবাইল ইন্টারনেট।

এর আগে বিটিআরসি’র নির্দেশ অনুযায়ী ভোটের আগেরদিন শনিবার রাত থেকে মোবাইল ইন্টারনেটের থ্রি-জি ও ফোর-জি সেবাবা বন্ধ করে দেয়া হয়েছিলো। পরে ভোট শেষে রবিবার সন্ধ্যায় তা খুলে দেয়া হয়। তবে রবিবার মধ্যরাত থেকে আবারো বন্ধ করে দেয়া হয় মোবাইল ইন্টারনেট।

এভাবে নির্দেশনা ছাড়াই মোবাইল ইন্টারনেট বন্ধ রাখায় গ্রাহকদের ভোগান্তি এখন চরমে। দেশে বর্তমানে আট কোটি ৬০ লাখের বেশি মোবাইল ইন্টারনেট সংযোগ আছে। এর মধ্যে ছয় কোটি সংযোগের বিপরীতে আছে থ্রি-জি সংযোগ। বিটিআরসির নির্দেশনার পরপরই অপারেটরগুলো থ্রি-জি ও ফোর-জি সেবার নেটওয়ার্ক বন্ধ করে দেওয়ায় এখন শুধু টু-জি চালু রয়েছে। এতে এখন মোবাইল ফোনে ইন্টারনেট ব্যবহার একপ্রকার বন্ধই হয়ে গেছে বলে গ্রাহকরা জানিয়েছেন।

নির্বাচন ঘিরে মোবাইল ইন্টারনেট বন্ধের জন্য দুঃখপ্রকাশ করে তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, জনগণের নিরাপত্তার স্বার্থে সন্ত্রাসী কার্যক্রম যাতে ছড়াতে না পারে সেজন্য এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

ফেমাসনিউজ২৪/ এসএ/ কেআর