logo

মঙ্গলবার, ২৩ জানুয়ারি ২০১৮ | ১০ মাঘ, ১৪২৪

header-ad

কম ঘুমে ঝুঁকি বাড়ে

ফেমাসনিউজ ডেস্ক | আপডেট: ১০ জানুয়ারি ২০১৮

জীবনধারণে খাবার গ্রহণ যেমন প্রয়োজন, পর্যাপ্ত ঘুমও তেমন প্রয়োজন। তবে, কতক্ষণ ঘুমাবেন বিষয়টি আমলে নিতে হবে আপনাকে। প্রচুর কাজ করেন আপনি কিন্তু ঘুমাচ্ছেন কম কিংবা ঘুমে অনিয়ম। এর ফলে, জটিল রোগের শিকার হতে হবে আপনাকে। সম্প্রতি সায়েন্স ডাইরেক্ট জার্নালে প্রকাশিত এক সমীক্ষার রিপোর্টে এ বিষয়ে সতর্ক করছেন বিজ্ঞানীরা।

তারা বলছেন, দিনে ৮ ঘণ্টার কম ঘুমালে বিষণ্নতা (ডিপ্রেশন) ও উদ্বিগ্নতায় (অ্যাংজাইটি) আক্রান্ত হবেন আপনি। শুধু তাই নয়, এই অভ্যাসের কারণে মনঃসংযোগ ক্ষমতা কমে যাবে, হৃদরোগসহ অন্য স্বাস্থ্যঝুঁকি বাড়বে।

ওই গবেষণা দলের প্রধান প্রফেসর মেরেডিথ কোল জানান, মানুষের একটা সাধারণ প্রবণতা হলো, কোনো একটি বিষয় নিয়ে চিন্তা করে যাওয়া। আর এসবের মধ্যে কিছু নেগেটিভ চিন্তাও থাকে। এইসব চিন্তাগুলিই উদ্বিগ্নতা ও বিষণ্নতার মতো জটিল স্বাস্থ্যঝুঁকি ডেকে আনতে পারে।

ওই গবেষণা অনুযায়ী, প্রয়োজনমতো ঘুম মস্তিস্ক থেকে নেগেটিভ চিন্তাভাবনা অনেকটাই হ্রাস করে। কেউ ডিপ্রেশন বা অ্যাংজাইটির শিকার হলে মনোরোগ বিশেষজ্ঞদের প্রধান কাজই হলো, ঘুমাতে যাওয়ার টাইমটেবিল ও ঘুমের সময় বেঁধে দেওয়া। তাই, মনোরোগ বিশেষজ্ঞের কাছে যাওয়ার আগে ঘুমের সময় ও পরিমাণ সম্পর্কে সচেতন হওয়া উচিত। আর যদি আপনি মনে করেন, ওই ভয়ঙ্কর সমস্যা থেকে মুক্তি চান তবে প্র্রতিরাতে ৮ ঘন্টা ঘুমের অভ্যাস মেনে চলুন।

ফেমাসনিউজ২৪/আরএ/আরইউ