logo

রবিবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭ | ৩ পৌষ, ১৪২৪

header-ad

যমুনানিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম খুলে দেয়ার দাবি (ভিডিও)

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: ৩০ আগস্ট ২০১৭

যমুনানিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের সাংবাদিক-কর্মচারীদের বকেয়া বেতন পরিশোধ ও অফিস খুলে দেওয়ার দাবিতে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানবন্ধন করেছেন প্রতিষ্ঠানটির সাংবাদিকরা।

৩০ আগস্ট বুধবার বেলা বারটায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। 

বন্ধ হওয়া এই পোর্টালটির বেতন-ভাতা বঞ্চিত সাংবাদিকদের আয়োজনে উক্ত সমাবেশে সমবেদনা প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক সংগঠনগুলোর শীর্ষ নেতৃবৃন্দ।

সমাবেশে ঢাকা রিপোটার্স ইউনিটির সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন বাদশা তার বক্তব্যে বলেন, যমুনানিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের সম্পাদক মেহবুবা আফতাব সাথীকে নিজে ফোন করেছি। এসএমএস করেছি। চেষ্টা করেছি তার সঙ্গে কথা বলে মিউচুয়েলি সাংবাদিকদের বেতন কীভাবে প্রদান করা যায়। কিন্তু সে আমাকে কোনো রেসপন্স করেনি। আমি জানি না সে এ বড় ধৃষ্টতা দেখানোর সাহস কোথায় পায়। অবিলম্বে সাংবাদিকদের বেতন-ভাতা প্রদান না করলে তার বাসা-বাড়ি ঘেড়াওয়ের কর্মসূচী দিতে আমরা বাধ্য হবো।

সাংবাদিক নেতা কুদ্দুছ আফ্রাদ বলেন, আজ সাংবাদিকরা যেখানে ঈদের কেনাকাটায় ব্যস্ত থাকার কথা সেখানে রাজপথে আন্দোলন করতে হচ্ছে। মেহবুবা আফতাব সাথী আপনি অবিলম্বে সাংবাদিকদের বেতনভাতা প্রদান করুন। তা ছাড়া আপনি কীভাবে কোটি টাকা সম্পদের মালিক হয়েছেন তা আমরা খতিয়ে দেখতে চাই। যতদ্রুত সম্ভব সাংবাদিকদের বেতন-ভাতা প্রদান করুন। সমাবেশে ৫৭ ধারা বাতিলেরও দাবি জানান এই সাংবাদিক নেতা।

সমাবেশে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী বলেন, মেহবুবা আফতাব সাথী আপনি সাংবাদিকদের বেতন না দিয়ে মানবতাবিরোধী অপরাধ করেছেন। কোনো নোটিশ ছাড়াই পত্রিকা অফিস বন্ধ করে দেওয়ায় সাংবাদিকদের বিগত পাওনা ছাড়াও অতিরিক্ত ৫ মাসের বেতন প্রদান করতে হবে। অন্যথায় আপনার বিরুদ্ধে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

সমাবেশে ঢাকা রিপোটার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক মোরসালিন নোমানী বলেন, যেহেতু এস আলম গ্রুপ এই পত্রিকার মালিক, তারা কাকে টাকা দিয়েছেন অথবা দেয়নি সেই প্রসঙ্গ টেনে এখন লাভ নেই। অবিলম্বে তাদের উচিত সুবিধাবঞ্চিত সাংবাদিকদের বেতন পরিশোধ পরিশোধ করা। তা ছাড়া আপনারা কীভাবে আপনাদের কার্যক্রম পরিচালনা করেন সেই বিষয়েও আমরা দেখতে চাই।

সমাবেশে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক নেতা জাহাঙ্গীর আলম প্রধান সমাবেশে বলেন, এটা কি মগের মুল্লক? আপনারা সম্পুর্ণ অকারণে অফিস বন্ধ করে দেবেন? মিয়ানমারে মুসলিম হত্যা করে তারা যেমন মুসলিম জাতির প্রতি যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন মেহবুবা আফতাব সাথীও আপনার পত্রিকার সাংবাদিকদের কাজ করে নিয়ে বেতন না দিয়ে একই ধরনের অপরাধ করেছেন।

ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সাংগাঠনিক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম বলেন, যমুনানিউজ পরিবারের আন্দোলনের সঙ্গে দেশের সবগুলো সাংবাদিক সংগঠন একিভূত হয়েছে। এই শক্তিকে কাজে লাগিয়ে আগামী দিনে সকল সাংবাদিকদের বেতন আদায়ে যমুনানিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম কর্তৃপক্ষকে বাধ্য করা হবে ইনশাল্লাহ।

ক্রাইম রিপোটার্স এসোসিয়েশন ক্র্যাব-এর সভাপতি আবু সালেহ আকন বলেন, যমুনানিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম পত্রিকার সাংবাদিকরা বেতন ভাতা না পেয়ে নানা সমস্যায় জর্জরিত। আমি ব্যক্তিগতভাবে তাদের সমস্যায় ব্যাথিত। অবিলম্বে তাদের বেতন-ভাতা প্রদান করে পোর্টালটি আগের মতো চালু করার ব্যবস্থা করুন এবং সেখানে সুবিধাবঞ্চিত সকল সাংবাদিকদের কাজের সুযোগ সৃষ্টি করে দিন।

সমাবেশে সভাপতির বক্তব্য রাখেন পোর্টালটির বার্তা সম্পাদক ও ঢাকা রিপোটার্স ইউনিটির দপ্তর সম্পাদক নয়ন মুরাদ। তিনি বলেন, দাবি আদায়ে প্রয়োজনে কারওয়ান বাজার অফিসের সামনে রাস্তা অবরুদ্ধ করে রাখা হবে। সেখানে সম্পাদক উপস্থিত হয়ে যতক্ষণ টাকা না দেবেন তখক্ষণ সেখানে অবস্থান করা হবে।

সমাবেশ ও মানববন্ধনে অন্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সহসভাপতি আতিকুল রহমান চৌধূরী, পোর্টালটির বিশেষ প্রতিনিধি আবুল কাসেম, জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক উজ্জল জিসান, শাহাদৎ স্বপন, তরিকুল ইসলাম প্রমুখ।

ফেমাসনিউজ২৪/আরআর/আরইউ