logo

সোমবার, ২২ অক্টোবর ২০১৮ | ৭ কার্তিক, ১৪২৫

header-ad

চালকের মুখ বুকে টেনে এ কি করলেন নগ্ন তরুণী ডাকাত!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | আপডেট: ১০ জানুয়ারি ২০১৮

ডাকাতি করতে আজব পন্থা নিয়েছিলেন আমেরিকার এক দম্পতি। কিন্তু শেষ ঘটনায় সেই পথ কাজে দেয়নি। আমেরিকার লুসিয়ানিয়া প্রদেশের হারানাহ শহরে এদিনও এক ট্যাক্সি ড্রাইভারকে লুট করতে পরিকল্পনা করেছিলেন তারা। কিন্তু এদিনও আর সেই পরিকল্পনা সফল হয়নি।

ট্যাক্সি ড্রাইভার জানাচ্ছেন, তার নম্বর আগে থেকেই ছিল অভিযুক্ত ওই দম্পতির কাছে। এদিন তাকে ফোন করেছিলেন ওই মহিলা। তিনিই একটি নির্দিষ্ট লোকেশনে আসতে বলেন। সেখানে সময় মতোই পৌঁছে যান চালক।

দূর থেকে আসতেও দেখেন ওই মহিলাকে। ওই মহিলা যাত্রী গাড়ির কাছে এগিয়ে আসেন। যাত্রীকে দেখে দরজা খুলে দেন চালক। দরজা খুলে দেখেন, ওই মহিলা যাত্রী নগ্ন হয়ে দাঁড়িয়ে আছেন। দরজা খোলার পরেই চালকের মুখ বুকের উপর চেপে ধরেন ওই মহিলা।

বেশ কিছুক্ষণ ধরে চুমু খাওয়া, হাত ধরে বশ করার চেষ্টা করেন। এর আই সুযোগেই গাড়িতে ওঠে দরজা বন্ধ করে দেন ওই মহিলার স্বামী। দরজা লক করে দিয়ে এরপরেই ছুরি বের করেন। টাকা পয়সা চেয়ে বসেন। ভাগ্য ভালো সামনেই ছিল পুলিশ চৌকি।

সেখান থেকেই সময় মতো হাজির হয় পুলিশ। হাতেনাতে ধরা পড়ে নগ্ন ডাকাত। হারহানের পুলিশ প্রধান জানিয়েছেন, ঘটনায় ২২ বছরের অ্যান্টনি কেনেডি ও ২২ বছরের রায়না ফিলিয়োসকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ট্যাক্সি ড্রাইভারের বয়ান নিয়ে পুলিশ জানিয়েছে, রায়না ফিলিয়োসকে গাড়িতে তুলতে গিয়েছিলেন ওই চালক। সেইসময় কিছু না পরেই তার সামনে আসেন রায়না। এরপর জোর করে তাকে বুকের মধ্যে টেনে নেন। পেছন থেকে ধারালো অস্ত্র নিয়ে হাজির হন তরুণীর সঙ্গী অ্যান্টনি কেনেডি। এরপর ওই চালকের কাছে থাকা টাকা-পয়সা দাবি করেন তারা। তবে হুমকির মুখেও নতিস্বীকার করেননি চালক।
ফেমাসনিউজ২৪/এফএম/এমএম