logo

শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৬ আশ্বিন, ১৪২৫

header-ad

`যারা খালেদার ওকালতি করছেন, তারা পাকিস্তানের দালাল,

ইসমাইল হোসেন বাবু, কুষ্টিয়া: | আপডেট: ১৭ আগস্ট ২০১৮

তথ্যমন্ত্রী যে কাজটি করেন, সে জন্য তাকে জিয়া পরিবারের সমালোচনা-বিষয়ক মন্ত্রী বলা উচিত’ বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খানের এই সমালোচনার জবাবে তথ্যমন্ত্রী, জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু বলেছেন, জেনারেল জিয়া, খালেদা এবং তারেকের দূষ্কর্মের মুখোষ উন্মোচন করতে না পারলে বাংলাদেশ নিরাপদ হবে না ও রাজনৈতিক শান্তি আসবে না। এখন যারা খালেদা তারেক জিয়ার পক্ষে ওকালতি করছেন তারা কার্যত পাকিস্তানের দালাল। বাংলাদেশকে রক্ষা করতে হলে ও দেশকে জঙ্গী সন্ত্রাস এবং সংঘাতমুক্ত করতে হলে জিয়া পরিবারের দুষ্কর্মের মুখোষ উন্মোচন করা সবারই কর্তৃব্য। এটা জরুরী হয়ে পড়েছে। আমি সেই কাজটি করছি।

শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে কুষ্টিয়া সার্কিট হাউজে স্থানীয় প্রশাসন ও দলীয় নেতাকর্মীর সাথে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

ইনু বলেন, বিএনপি হচ্ছে সেই দল যারা ৭৫ এর পরে বঙ্গবন্ধু হত্যার অপরাজনীতি বহন করছে। তাই বাংলাদেশকে নিয়মতান্ত্রিক পথে রাখতে হলে বঙ্গবন্ধু হত্যার অপরাজনীতির বাহকদেরও শাহেস্তা করতে হবে এবং রাজনীতি ও নির্বাচনের বাইরে নির্বাসনে পাঠাতে হবে। এটা রাজনৈতিক কথা, কোন প্রতিহিংসার কথা নয়।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, এখন যারা খালেদা তারেক জিয়ার পক্ষে ওকালতি করছেন তারা কার্যত পাকিস্তানের দালাল, আলবদর রাজাকারের দোষর, জঙ্গী সন্ত্রাসীদের পৃষ্টপোষক। সূতরাং বিএনপি নের্তৃবৃন্দ এই ব্যাপারে আমার সমালোচনা করার মধ্যদিয়ে জেনারেল জিয়া, খালেদা ও তারেকের দূষ্কর্ম আড়াল করার চেষ্টা করছেন।

নজরুল ইসলাম খানকে উদ্দেশ্য করে ইনু বলেন, সামনে নির্বাচন আছে সংবিধান অনুযায়ী করবেন। কিন্তু নির্বাচন নিয়ে জিয়া, খালেদা ও তারেকের বিষয়ে দরকষাকষি করে কোন অপরাদীদের হালাল করার কোন পক্রিয়াতে আমাদের সরকার যাবে না।

এ সময় কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার একেএম জহিরুল ইসলাম, জাসদের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আলীম স্বপন, জেলা জাসদের সভাপতি গোলাম মহসিন, মিরপুর উপজেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক আহাম্মদ আলীসহ দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। পরে মন্ত্রীকে গার্ড অব অনার দেয়া হয়।

ফেমাসনিউজ২৪.কম/কেআর/এস