logo

রবিবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২১ | ১১ মাঘ, ১৪২৭

header-ad

ঐক্যফ্রন্ট ও বিএনপির চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানালেন মির্জা ফখরুল

রাজনীতি ডেস্ক | আপডেট: ১৫ জানুয়ারি ২০১৯

বিএনপি মহাসচিব ও ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, প্রহসনের নির্বাচন ও ভোট ডাকাতির জন্য আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের স্টেডিয়ামে গিয়ে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়া উচিত। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বাতিলের এজেন্ডা থাকলে আমরা সংলাপে যাবো, না হলে যাব না। এটাই ঐক্যফ্রন্ট ও বিএনপির চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত।

যাদের সঙ্গে নির্বাচনের আগে প্রধানমন্ত্রী সংলাপ করেছেন, তাদের সঙ্গে তিনি আবার সংলাপে বসবেন ও চায়ের আমন্ত্রণ জানাবেন গতকাল আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন কথায় ১৫ জানুয়ারি মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দলের আহত এক কর্মীকে দেখতে গিয়ে এসব কথা বলেন মির্জা ফখরুল।

দুর্বৃত্তদের হামলায় যশোরের যুবদলকর্মী ফয়সালকে দেখতে যান বিএনপির মহাসচিব।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, সারাদেশ এখন হাসপাতালে পরিণত হয়েছে। ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনের পর থেকে আওয়ামী লীগ প্রতিটি জেলায় অত্যাচার, নির্যাতন ও নৈরাজ্য সৃষ্টি করেছে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ফাঁকা মাঠে গোল করার যে কৌশল নিয়েছিল তা জাতির সামনে ওঠে এসেছে। এ সরকারের কোনও লজ্জাশরম নেই। ক্ষমতাসীন সরকার একাদশ সংসদ নির্বাচনে এতো বড় একটা চুরি করলো যে, তা এখন সামাল দিতে পারছে না।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, যশোরের যুবদলকর্মী ফয়সালকে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। তার শরীরে আট ব্যাগ রক্ত দিতে হয়েছে। ক্ষমতা কী ভয়ঙ্কর! মানুষকে আর মানুষ মনে হয় না তাদের। দেশের মানুষের মুখে কোনো হাসি নেই। নির্বাচন নিয়ে সবার বুকে কষ্ট।

এ সময় মির্জা ফখরুলের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এ জেড এম জাহিদ হোসেন, শায়রুল কবির খান প্রমুখ।
ফেমাসনিউজ২৪/এফএম/এমএম